Home / ফিচার / আনন্দ শোভাযাত্রা আজ সারাদেশে

আনন্দ শোভাযাত্রা আজ সারাদেশে

আজ শনিবার সারাদেশে ‘আনন্দ শোভাযাত্রা’ করা হবে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৭ মার্চের ভাষণকে ইউনেসকো ‘বিশ্ব প্রামাণ্য ঐতিহ্য’হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়ায় ।

রাজধানীর শোভাযাত্রাটি আজ বেলা ১২টায় ধানমণ্ডির বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘর থেকে যাত্রা শুরু করে শেষ হবে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে। দেশের বিশিষ্ট রাজনীতিক, সংসদ সদস্য, মুক্তিযোদ্ধা, সংস্কৃতিক ব্যক্তি, ক্রীড়াবিদ, এনজিও কর্মী, স্কাউটসদস্যসহ বিভিন্ন পর্যায়ের মানুষ ও সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারিরা এতে অংশ নেবেন। এ ছাড়া রাজধানীর অন্যান্য স্থান থেকেও সরকারি চাকুরেদের আনন্দ শোভাযাত্রা যাবে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে।

আজকের আনন্দ শোভাযাত্রার রুটম্যাপ দেখে নগরবাসীকে চলাচলের অনুরোধ জানিয়েছে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) ট্রাফিক দক্ষিণ বিভাগ।

শুক্রবার ডিএমপির এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা উল্লেখ করে ট্রাফিক বিভাগকে সহযোগিতা করার জন্য নগরবাসীর প্রতি অনুরোধ করা হয়।

শোভাযাত্রার রুটের নকশা তুলে ধরে ডিএমপির সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, শনিবার আনন্দ শোভাযাত্রা বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘর থেকে শুরু করে মিরপুর রোডের রাসেল স্কয়ার দিয়ে কলাবাগান হয়ে সায়েন্স ল্যাব বামে মোড় নেবে। এরপর বাটা সিগন্যাল-কাঁটাবন ক্রসিং হয়ে শাহবাগ ডানে মোড় নিয়ে ছবির হাট হয়ে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে ঢুকবে।

সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে ঢোকার ক্ষেত্রে ছবির হাট গেট (চারুকলার বিপরীতে), টিএসসি গেট (বাংলা একাডেমির বিপরীতে), কালীমন্দির গেট ও তিন নেতার মাজার গেট ব্যবহার করতে হবে।

রাজধানীর পাশাপাশি সারা দেশে সরকারি চাকুরেরা আনন্দ শোভাযাত্রা ও সমাবেশ করবেন। এ ব্যাপারে শুক্রবার সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ-সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম সংবাদ ব্রিফিংয়ে বিভিন্ন তথ্য জানান সাংবাদিকদের।

মন্ত্রিপরিষদ-সচিব জানান, ধানমন্ডির ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানানোর মধ্য দিয়ে দুপুর ১২টায় ঢাকা মহানগরের অনুষ্ঠান শুরু হবে। এরপর অন্যান্য স্থান থেকে শোভাযাত্রাসহ  সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সমাবেশস্থলে যাবে।

বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিশু-কিশোর, জনপ্রতিনিধি, সাংস্কৃতিক কর্মী ও সর্বস্তরের জনসাধারণ অনুষ্ঠানে অংশ নেবে বলে জানান মন্ত্রিপরিষদ সচিব ।

সচিব আরও জানান, সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য দেবেন বঙ্গবন্ধু-কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ ছাড়া থাকবে  বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও লেজার শো।

ইউনেসকো এবার বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণসহ বিশ্বের ৮১টি দলিলকে বিশ্ব ঐতিহ্যের স্বীকৃতি দেয়। এ নিয়ে বিশ্বে এখন পর্যন্ত মোট ৪২৭টি নথি যুক্ত হলো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Skip to toolbar