Home / খবর / আ.লীগ চেয়ারম্যান প্রার্থী জয়ী পটিয়া বোয়ালখালী ও বাঁশখালীতে

আ.লীগ চেয়ারম্যান প্রার্থী জয়ী পটিয়া বোয়ালখালী ও বাঁশখালীতে

দক্ষিণ চট্টগ্রামের তিন উপজেলায় গতকাল অনুষ্ঠিত নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থীরা বিজয়ী হয়েছেন। এর মধ্যে পটিয়ায় উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে লক্ষাধিক ভোটের ব্যবধানে বিজয়ী হয়েছেন আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের প্রার্থী ও দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মোতাহেরুল ইসলাম চৌধুরী। তিনি পেয়েছেন এক লাখ ২১ হাজার ১৬৭ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী দোয়াত কলম প্রতীকে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক সদস্য সাজ্জাত হোসেন পেয়েছেন দুই হাজার ৬২৫ ভোট। যা ভোটের ব্যবধান এক লাখ ১৮ হাজার ৫৪২ ভোট।
একইভাবে ভাইস চেয়ারম্যান পদে জয়ী হয়েছেন দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডা. তিমির বরণ চৌধুরী। তিনি উড়োজাহাজ প্রতীকে পেয়েছেন ৯২ হাজার ৪৬৫ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ইসলামী ফ্রন্ট নেতা এয়ার মুহাম্মদ পেয়ারু বই প্রতীকে পেয়েছেন ২৫ হাজার ৫৬ ভোট। তবে ১১৩টি কেন্দ্রের মধ্যে ১টি কেন্দ্রের নির্বাচন স্থগিত হওয়ায় আনুষ্ঠানিকভাবে বিজয়ী ঘোষণা করেনি নির্বাচন কমিশন। যদিও স্থগিত একটি কেন্দ্রের যে ভোট রয়েছে তা জয়ী হওয়ার জন্য সে ভোটের প্রয়োজন হবে না। তাই বলা যায় চেয়ারম্যান পদে মোতাহেরুল ইসলাম এবং ভাইস চেয়ারম্যান পদে ডা. তিমির বরণ চৌধুরী জয়ী হয়েছেন। গতকাল সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ভোট গ্রহণ শেষ হলে গণনা শেষে ভোটের ফলাফল ঘোষণা করেন পটিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও সহকারী রিটার্নিং অফিসার হাবিবুল হাসান। এ ব্যাপারে পটিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও সহকারী রিটার্নিং অফিসার হাবিবুল হাসান বলেন, ১১৩টি কেন্দ্রের মধ্যের ১১২টি কেন্দ্রের ফলাফল ঘোষণা করেছি আমরা। এতে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের প্রার্থী মোতাহেরুল ইসলাম চৌধুরী ও ভাইস চেয়ারম্যান পদে স্বতন্ত্র প্রার্থী উড়োজাহাজ প্রতীকে ডা: তিমির বরণ বিশাল ব্যবধানে এগিয়ে রয়েছেন। এগিয়ে থাকায় তারা বিজয়ী হওয়ার কথা থাকলেও যেহেতু একটি কেন্দ্রের নির্বাচন স্থগিত করা হয়েছে তাই আমরা বিজয়ী ঘোষণা করতে পারছি না। যে কেন্দ্রের নির্বাচন স্থগিত হয়েছে সে কেন্দ্রের ভোট দুই হাজার ৬১৫ ভোট। যা তাদের প্রাপ্ত ভোটের চেয়ে লক্ষাধিক ভোটের ব্যবধান। বিষয়টি আমরা নির্বাচন কমিশনে পাঠানোর পর যদি অনুমোদন হয় তাহলে মোতাহেরুল ইসলাম চৌধুরী ও ডা: তিমির বরণ চৌধুরীকে বেসরকারি ভাবে ঘোষণা করা হবে।
ফলাফলে দেখা গেছে, চেয়ারম্যান পদে ১১২টি কেন্দ্রে মোট ভোট পড়েছে এক লাখ ২৮ হাজার ৩৮৪ ভোট। তন্মধ্যে বৈধ ভোট পড়েছে এক লাখ ২৬ হাজার ১৮০ ভোট ও বাতিল হয়েছে দুই হাজার ২০৪ ভোট। বৈধ ভোটের মধ্যে আওয়ামী লীগের প্রার্থী মোতাহেরুল ইসলাম চৌধুরী নৌকা প্রতীকে পেয়েছে এক লাখ ২১ হাজার ১৬৭ ভোট। তার প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী মোহাম্মদ সাজ্জাত হোসেন পেয়েছেন দুই হাজার ৬২৫ ভোট। অপর প্রার্থী আফরোজা বেগম জলি আনারস প্রতীকে পেয়েছে দুই হাজার ৩৮৮ ভোট। ভাইস চেয়ারম্যান পদে ১১২টি কেন্দ্রে ভোট পড়েছে এক লাখ ২৮ হাজার ২৬৯ ভোট। তন্মধ্যে বৈধ ভোট পড়েছে এক লাখ ২৫ হাজার ৮৯২ ভোট ও বাতিল হয়েছে দুই হাজার ৩৭৭ ভোট।
বৈধ ভোটের মধ্যে ডা: তিমির বরণ চৌধুরী উড়োজাহাজ প্রতীকে পেয়েছেন ৯২ হাজার ৪৬৫ ভোট ও প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী এয়ার মুহাম্মদ পেয়ারু বই প্রতীকে পেয়েছেন ২৫ হাজার ৫৬ ভোট। অপর প্রার্থী সাহাব উদ্দীন তালা প্রতীকে পেয়েছেন আট হাজার ৩৬৮ ভোট। এর আগে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে মাজেদা বেগম শিরু বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হওয়ায় এ পদে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়নি।
বাঁশখালীতে গালিব বিজয়ী:
আমাদের বাঁশখালী প্রতিনিধি জানান, বাঁশখালী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী চৌধুরী মোহাম্মদ গালিব সাদলী (নৌকা) প্রতীক নিয়ে ৫৯ হাজার ৪৫৪ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার প্রতিদ্বন্দ্বী অপর দুই প্রার্থী মো. খোরশেদ আলম (আনারস) ২৬ হাজার ১৩৪ ভোট ও মৌলভী নুর হোসেন (কাপপিরিচ) ২ হাজার ৩৫৭ ভোট পেয়েছেন। চেয়ারম্যান পদে মোট বৈধ ভোট ৮৭ হাজার ৯৪৫টি। বাতিল হয়েছে ২ হাজার ৯২ ভোট।
অপরদিকে ভাইস চেয়ারম্যান পদে উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মো. এমরানুল হক ইমরান (উড়োজাহাজ) ৩৭ হাজার ৮৬৭ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। অপর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক আবদুল গফুর (টিউবওয়েল) ২১ হাজার ৪৬ ভোট, যুবলীগ নেতা শাহাদত রশীদ চৌধুরী (তালাচাবি) ১৮ হাজার ৪শ ৫৮ ভোট, দক্ষিণ জেলা যুবলীগ নেতা মোঃ সোলাইমান (মাইক) ৮ হাজার ৯শ ৪৭ ভোট পেয়েছেন। মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভানেত্রী রেহেনা আক্তার কাজেমী (ফুটবল) ৪৬ হাজার ৫শ ৭০ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। অপর প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী দক্ষিণ জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নুরীমন আক্তার (প্রজাপতি) পেয়েছেন ৩৮ হাজার ৪শ ৭৯ ভোট। গতকাল রাত ১০টায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা মোমেনা আক্তার বেসরকারি ভাবে এ ফলাফল ঘোষণা করেন।
বোয়ালখালীতে নুরুল আলম চেয়ারম্যান নির্বাচিত:
আমাদের বোয়ালখালী প্রতিনিধি জানান, এই উপজেলায় নৌকা প্রতীকে ২৮ হাজার ১৯ ভোট পেয়ে নুরুল আলম চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আনারস প্রতীকে স্বতন্ত্র প্রার্থী জেলা আওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক আবদুল কাদের সুজন পেয়েছেন ১৬ হাজার ১১১ ভোট। এছাড়া উড়োজাহাজ প্রতীকে ১৮ হাজার ৯৮ ভোট পেয়ে মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার এস এম সেলিম ভাইস চেয়ারম্যান এবং প্রজাপতি প্রতীকে ২৬ হাজার ৫৬৫ ভোট পেয়ে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শামীম আরা বেগম।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Skip to toolbar