Home / অন্যান্য / অপরাধ / কলেজছাত্রের গলাকাটা লাশ উদ্ধার যশোরে

কলেজছাত্রের গলাকাটা লাশ উদ্ধার যশোরে

পুলিশ যশোরে সোহাগ হোসেন নামে এক কলেজছাত্রের গলাকাটা লাশ উদ্ধার করেছে । শহরের ভৈরব নদের কূলে ঘাসবন থেকে সোমবার দুপুরে তার লাশ উদ্ধার করা হয়।

তিনি মোল্যাপাড়া আমতলা এলাকার নদের উপকূলে ড্রাইবার হাবিবুর রহমানের ছেলে। রবিবার রাত ১১টার দিকে কতিপয় যুবক তাকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে গেলে আর বাড়ি ফিরে আসেনি।

নিহতের ভাই মিলন হোসেন জানান, সোহাগ হোসেন হামিদপুর ডিগ্রি কলেজের উচ্চ মাধ্যমিকের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র ছিল। কাল রাতে রায়হান নামে এক যুবক তাকে ডেকে নিয়ে যায়। আধা ঘন্টার পর সে মাকে ফোন করে জানায়,তার আসতে দেরি হবে।  এর কিছু সময়ের পর তার ফোন বন্ধ পাওয়া যায়। সারারাত অপেক্ষা করার পরও সে বাড়ি ফিরে আসেনি।

ভৈরব নদের কূলের বাসিন্দা বাসুদেব রায় সোমবার বেলা ১১টার দিকে নদে ঘাস কাটতে গিয়ে এক যুবক ঘাসের মধ্যে শুয়ে আছে বলে ফিরে এসে স্থানীয়দের জানায়। এসময় তারা ঘাসের মধ্যে সোহাগ হোসেনের গলাকাটা এবং বুকে কয়েকটি স্থানে ছুরিকাহত অবস্থায় পড়ে আছে। সোহাগের লাশ যেখানে পড়ে আছে সেখানে ঘাসের মধ্যে ধস্তাধস্তির চিহ্ন রয়েছে বলে স্থানীয়রা জানিয়েছেন। তাকে হত্যার আগে সেখানে সোহাগের সাথে ধস্তাধস্তি হয়েছে বলে স্থানীয়রা ধারণা করেছেন।

মিলন হোসেন আরো জানান, সোহাগের হাতে আংটি এবং মোবাইল ছিল যা পাওয়া যায়নি। সেগুলো খুনিরা নিয়ে গেছে। 

ঘটনা জানার পর যশোর কোতয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা( ওসি) মনিরুজ্জামান, ওসি (তদন্ত) সমীর কুমার সরকারসহ পুলিশের অন্যান্য কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

কোতয়ালি মডেল থানার পুলিশ সোহাগ হোসেনের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য যশোর জেনারেল হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করেছে।

ওসি (তদন্ত) সমীর কুমার সরকার গলাকেটে কলেজছাত্র সোহাগ খুন হয়েছে বলে স্বীকার করে জানান, কি কারণে এবং কারা এ খুন করেছে তা এ মুহূর্তে বলা সম্ভব হচ্ছে না। পুলিশ অভিযান শুরু করেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Skip to toolbar