Home / অর্থ-বাণিজ্য / ‘চামড়া শিল্পনগরী’ হচ্ছে চট্টগ্রামে

‘চামড়া শিল্পনগরী’ হচ্ছে চট্টগ্রামে

শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু দেশের প্রধান দুই বিভাগীয় শহর চট্টগ্রাম ও রাজশাহীতে পৃথক দুটি ‘চামড়া শিল্পনগরী’ গড়ে তোলার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন ।

তিনি বলেছেন, ‘দেশ ও বিদেশের বাজারে পাদুকা ও চামড়া পণ্যের বিশাল সম্ভাবনা কাজে লাগাতে প্রধানমন্ত্রী নির্দেশনা দিয়েছেন। তাঁর নির্দেশনায় চট্টগ্রাম ও রাজশাহীতে দুটি চামড়া শিল্পনগরী হবে। ইতোমধ্যে শিল্পনগরী দুটির স্থান নির্ধারণের কাজ শুরু হয়েছে। বিসিক এ কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে।’

রবিবার (০৯ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর মতিঝিলে শিল্প মন্ত্রণালয়ে অনুষ্ঠিত জাতীয় শিল্প উন্নয়ন পরিষদের নির্বাহী কমিটির (ইসিএনসিআইডি) সভায় এ তথ্য জানান শিল্পমন্ত্রী।

নিরবচ্ছিন্ন খাদ্য উৎপাদনের স্বার্থে বিসিআইসি’র সার কারখানাগুলোতে নিয়মিত গ্যাস সরবরাহের ওপর গুরুত্ব দেন আমির হোসেন।

তিনি বলেন, ‘শিল্প-কারখানায় গ্যাস সংযোগ বন্ধ না করে সিস্টেম লস কমানোর ওপর নজর দিতে হবে। গৃহস্থালি ও পরিবহনে জ্বালানি হিসেবে সিলিন্ডার ও এলএনজি ব্যবহার করে শুধু শিল্প-কারখানায় প্রাকৃতিক গ্যাস সরবরাহ করতে হবে।’

সভায় দেশব্যাপী শিল্পায়ন জোরদার, ক্লাস্টারভিত্তিক শিল্প কারখানায় ঋণ সুবিধা বৃদ্ধি, কৃষিভিত্তিক শিল্পে প্রণোদনা প্রদান, জাহাজ নির্মাণ শিল্পের প্রসার, বর্জ্য ব্যবস্থাপনা, ক্ষুদ্র শিল্প উদ্যোক্তাদের জন্য ওয়ানস্টপ সার্ভিস চালুসহ সংশ্লিষ্ট অন্যান্য বিষয়েও আলোচনা হয়।

এছাড়া সভায় আগামী এক মাসের মধ্যে জাহাজ নির্মাণ শিল্পনীতিমালার খসড়া চূড়ান্ত করার সিদ্ধান্ত গৃহীত হওয়ার পাশাপাশি দেশব্যাপী টেকসই ক্ষুদ্র, কুটির ও মাঝারি শিল্পখাত বিকাশের লক্ষ্যে বিসিকের আওতায় ওয়ান স্টপ সার্ভিস প্রদানের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

সভায় জ্বালানি ও খনিজসম্পদ বিভাগের সচিব আবু হেনা মো. রহমাতুল মুনিম, কৃষিসচিব মো. নাসিরুজ্জামান, শিল্প মন্ত্রণালয়ের ভারপ্রাপ্ত সচিব মো. আবদুল হালিম, এফবিসিসিআইর সভাপতি শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিনসহ শিল্প, বাণিজ্য, শ্রম ও কর্মসংস্থান, বস্ত্র ও পাট, মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ, বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন, কৃষি, প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান, পরিবেশ ও বন, ভূমি, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি, মহিলা ও শিশু, বিদ্যুৎ, ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয়, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি, স্থানীয় সরকার ও জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগ, বিসিক, বিসিআইসি, বিনিয়োগ বোর্ড, জাতীয় রাজস্ব বোর্ড, এসএমই ফাউন্ডেশন, পরিকল্পনা কমিশন, বাংলাদেশ ট্যারিফ কমিশন, আইসিবি, বেপজা, বেজা, চট্টগ্রাম চেম্বার, বিসিআই, এমসিসিআই, নাসিব, বাংলাদেশ অটো ব্রিকস্ ম্যানুফ্যাকচারিং অ্যাসোসিয়েশন, বাংলা ক্রাফ্ট, বিজিএপিএমইএ ও বিপিজিএমইএসহ সংশ্লিষ্ট সংস্থার প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Skip to toolbar