Home / অন্যান্য / অপরাধ / দুই খুন একদিনে

দুই খুন একদিনে

একদিনেই দুই খুন নগরীতে । নেশাগ্রস্ত এক ব্যক্তির এলোপাতাড়ি বঁটির কোপে সন্ধ্যা রাণী বণিক (৭০) নামে এক বৃদ্ধার মৃত্যু হয়েছে। গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে উত্তর কাট্টলীর বড় কালীবাড়ি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এছাড়া মুরাদপুর এলাকায় গতকাল রাতে ছুরিকাঘাতে খুন হয়েছেন মোস্তাক আহমদ (৪৫) নামে এক ব্যক্তি। ঘটনাস্থলে উপস্থিত লোকজন দুই খুনিকেই গণপিটুনি দিয়ে পুলিশের হাতে তুলে দিয়েছে স্থানীয়রা।
ইয়াবা আসক্তের বঁটির আঘাতে নিহত সন্ধ্যা রাণী উত্তর কাট্টলী বড় কালীবাড়ি এলাকার ধীরেন্দ্র বণিকের স্ত্রী। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরো ৪ জন। তারা চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। এদের মধ্যে টিংকু দত্ত (৪৫) নামে একজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। তাকে ঢাকায় পঙ্গু হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।
আকবর শাহ থানার ওসি জসিমউদ্দিন দৈনিক আজাদীকে জানান, স্থানীয় সুনীল ঘোষের সন্তান এলএমএফ চিকিৎসক সত্যজিৎ ওরফে ববি ঘোষ দীর্ঘদিন ধরে ইয়াবা আসক্ত ছিলেন। এ জন্য অতীষ্ঠ হয়ে তার স্ত্রী তাকে ছেড়ে সন্তানসহ বাপের বাড়ি চলে যান। এরপর থেকে তিনি মানসিকভাবে ভেঙে পড়েন। গতকাল সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে ইয়াবা সেবন করে সত্যজিৎ নিজের ঘরের তোষকে আগুন ধরিয়ে দেন। এতে ধোঁয়ার সৃষ্টি হলে আশেপাশের লোকজন এগিয়ে আসেন সাহায্য করতে। সত্যজিৎ হঠাৎ করে ঘর থেকে বঁটি হাতে বের হয়ে লোকজনকে এলোপাথাড়ি কোপাতে থাকেন। এতে ঘটনাস্থলেই সন্ধ্যা রাণী মারা যান। আহত হন আরো চারজন।
ওসি জানান, এরপর জনরোষ থেকে বাঁচতে সত্যজিৎ পুকুরে ঝাঁপ দেন। পুকুরে স্থানীয় লোকজনের ছোড়া ঢিলে তিনি আহত হন। তারা তাকে পুকুর থেকে তুলে গণপিটুনি দেয়। তিনি জানান, ডোপ টেস্টের জন্য সত্যজিৎকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। স্বাস্থ্য পরীক্ষার পর তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির নায়েক শীলব্রত বড়ুয়া জানান, দায়ের কোপে আহত শান্তি নন্দী (৭০), দীপক দত্ত (৪৮), টিংকু দত্ত (৪৫) ও প্রবীর তালুকদারকে (৪০) চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এদের মধ্যে টিংকু দত্তকে ঢাকার পঙ্গু হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।
অর্থোপেডিক ওয়ার্ডের চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, টিংকু দত্তের হাতের রক্তনালী ও হাড় কাটা পড়েছে। যে কারণে উন্নত চিকিৎসার জন্য রাত সাড়ে ১০টার দিকে তাকে পঙ্গু হাসপাতাল পাঠানো হয়েছে।
মুরাদপুরে ছুরিকাঘাতে মৃত্যু
নগরীর মুরাদপুর এলাকায় ছুরিকাঘাতে খুন হয়েছেন মোস্তাক আহমদ (৪৫) নামে এক ব্যক্তি। তিনি সাতকানিয়া উপজেলার দেওয়ান মাহমুদের ছেলে। গতকাল রাত সাড়ে ৮টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। এসময় জনতার গণপিটুনিতে আহত হন ছুরিকাঘাতকারী শাহাদাত।
সিএমপির উপ-কমিশনার (উত্তর) বিজয় বসাক বলেন, মুরাদপুরের পিলখানা এলাকার সাতকানিয়া স্টোরের সামনে কথা কাটাকাটির জেরে ছুরিকাঘাতে মোস্তাক আহমদ নামে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় শাহাদাত নামে একজনকে আটক করা হয়েছে।
তিনি জানান, ওই এলাকায় আড্ডা দেওয়া নিয়ে মোস্তাক আহমদের ছেলের সঙ্গে স্থানীয় যুবকদের ঝগড়া হয়। পরে এর রেশ ধরে মোস্তাক আহমদের সঙ্গেও কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে মোস্তাক আহমদকে ছুরিকাঘাত করে শাহাদাত।
জানা যায়, গুরুতর আহত মোস্তাককে চমেক হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Skip to toolbar