Home / অন্যান্য / অপরাধ / ‘ধর্ষণ’ কলেজছাত্রীকে অপহরণের পর

‘ধর্ষণ’ কলেজছাত্রীকে অপহরণের পর

অপহরণের পর হত্যার ভয় দেখিয়ে একাধিকবার কলেজ শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ করে মামলার আসামি সোলাইমান নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলার মাহমুদাবাদ এলাকায় । উদ্ধার অপহৃত ওই কলেজশিক্ষার্থী নারায়ণগঞ্জ আদালতে এরকম জবানবন্দি দেন।

বুধবার বিকালে জবানবন্দির বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রূপগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহমুদুল হাসান।

ধর্ষিতা কলেজশিক্ষার্থীর জবানবন্দির বরাত দিয়ে ওসি জানান, ‘ডাকাত সোলাইমান অনেক দিন ধরেই ওই শিক্ষার্থীকে প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে আসছিল। ফোনে বিভিন্ন সময় বিরক্ত করত। সন্ত্রাসী ও ডাকাত হওয়ায় প্রেমের প্রস্তাবে রাজি হয়নি। গত ৮ মে দুপুরে রুপায়ন কিন্ডার গার্টেন স্কুলের সামনে থেকে মাইক্রোবাস যোগে অপহরণ করে একটি বাড়িতে রাখে। ওই মাইক্রোবাসে আরো ৩ থেকে ৪ জন লোক ছিল। ওই বাড়িতে নিয়ে যাওয়ার পর কলেজ শিক্ষার্থীকে চার দিন ধরে আটকে রাখা হয়। সেখানে হত্যার ভয় দেখিয়ে ওই শিক্ষার্থীকে একাধিকবার ধর্ষণ করে ডাকাত সোলাইমান।’

মুড়াপাড়া বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের একাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থীকে অপহরণের পর ধর্ষণ করা হয়। পরে অপহৃতা শিক্ষার্থীর পিতা বাদী হয়ে রূপগঞ্জ থানায় মামলা করেন। পরে গত ১২ মে রাতে ডাকাত সোলাইমানকে গ্রেপ্তার ও অপহৃতা কলেজ শিক্ষার্থীকে উদ্ধার করে পুলিশ।

ডাকাত সোলাইমানকে সাত দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে প্রেরণ করলে আদালত তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Skip to toolbar