Home / আর্ন্তজাতিক / পোপকে রোহিঙ্গা শব্দ ব্যবহার না করতে বলা হলো

পোপকে রোহিঙ্গা শব্দ ব্যবহার না করতে বলা হলো

পোপ ফ্রান্সিসকে পরামর্শ দেয়া হয়েছে, তিনি যেন মিয়ানমারে অবস্থানের সময় রোহিঙ্গা শব্দটি ব্যবহার না করেন। ইয়াঙ্গুনের আর্চবিশপ পোপকে এ পরামর্শ দিয়েছেন। তিনি বলেছেন, ‘রোহিঙ্গা’ শব্দটা এড়ানোই উত্তম হবে। মিয়ানামারে উত্তেজনা না ছড়ানোর জন্য পোপকে এমন পরামর্শ দিয়েছেন আর্চবিশপ। ভ্যাটিকানের মুখপাত্র গ্রেগ বার্ক গতকাল গণমাধ্যমকে জানান, পোপের সফর সূচীতে শেষ মুহুর্তে নতুন দুটি সাক্ষাত যোগ করা হয়েছে। এর মধ্যে ইয়াঙ্গুনে বিশপের বাসভবনে পোপ মিয়ানমার সেনাপ্রধান জেনারেল মিন অং হলেইং এর সঙ্গে দেখা করবেন।

 আর ঢাকায় আন্ত-ধর্মীয় এক সভায় সাক্ষাত করবেন একদল রোহিঙ্গার সঙ্গে।
আগামী সপ্তাহে বাংলাদেশ ও মিয়ানমার সফরে আসছেন পোপ ফ্রান্সিস। মিয়ানমারে অবস্থানকালীন পোপ যেন রোহিঙ্গা শব্দটি ব্যবহার না করেন তেমন পরামর্শের কথা গণমাধ্যমকে জানান মি. বার্ক। পোপ ফ্রান্সিস তার সফরে আসলেই ‘রোহিঙ্গা’ শব্দটি ব্যবহার করবেন কিনা তা নিয়ে মন্তব্য করতে চান নি ভ্যাটিকান মুখপাত্র। তবে, বুধবারের প্রেস ব্রিফিংয়ে মি. বার্ক বলেছিলেন, এটা নিষিদ্ধ কোন শব্দ নয়।
পোপ ফ্রান্সিস এর আগে বেশ কয়েকবার রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর ওপর নিপিড়নের তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন। তাদের পূর্ণ অধিকার ফিরিয়ে দেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন। রোহিঙ্গাদের দূর্দশার কথা বলতে গিয়ে তিনি তাদের সম্বোধন করেছেন, ‘আমাদের রোহিঙ্গা ভাই’ বলে।
উল্লেখ্য, আগস্ট মাস থেকে এ পর্যন্ত মিয়ানমারে সামরিক অভিযানে নিপিড়নের শিকার হয়ে ৬ লাখ ২০ হাজারের বেশি রোহিঙ্গা বাংলাদেশে পালিয়ে এসেছে। আজ ন্যাপিড’তে দু’দেশের মধ্যে রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসন নিয়ে একটি চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে। ভ্যাটিকান মুখপাত্র বার্ক বলেন, দু’দেশের মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ এক সময়ে সফর করতে যাচ্ছেন পোপ ফ্রান্সিস।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Skip to toolbar