Home / অন্যান্য / নির্বাচন / প্রত্যাহারের নির্দেশ ডিসি, এডিসি ও ৪ ওসিকে

প্রত্যাহারের নির্দেশ ডিসি, এডিসি ও ৪ ওসিকে

নির্বাচন কমিশন (ইসি) গাইবান্ধার জেলা প্রশাসক ও রিটার্নিং কর্মকর্তা সেবাষ্টিন রেমা ও ফরিদপুরের এডিসি সাইফুল হাসানকে প্রত্যাহারের নির্দেশ দিয়েছে । এছাড়া রাজধানীর রমনা, নোয়াখালীর সোনাইমুড়ি, ঠাকুরগাঁও সদর ও ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে (ওসি) প্রত্যাহার করতে নির্দেশ দিয়েছে ইসি।

বুধবার গাইবান্ধার ডিসি ও ফরিদপুরের এডিসিকে প্রত্যাহার করে নিতে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়কে একটি চিঠি পাঠায় নির্বাচন কমিশন। অন্যদিকে চার ওসিকে প্রত্যাহারের নির্দেশনা কার্যকর করতে মহাপুলিশ পরিদর্শক জাবেদ পাটোয়ারিকে চিঠি পাঠিয়েছে।

যেসব থানার ওসিকে প্রত্যাহারের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে তারা হলেন- ঢাকার রমনা থানার ওসি কাজী মাইনুল ইসলাম, নোয়াখালী সোনাইমুড়ী থানার ওসি আবদুল মজিদ, ঠাকুরগাঁও সদর থানার ওসি মো. মোস্তাফিজুর রহমান ও ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগর থানার ওসি কবির হোসেন।

নির্বাচন কমিশনের সংস্থাপন শাখার উপসচিব সাবেদ উর রহমান বলেন, ‘সেবাস্টিন রেমার বিরুদ্ধে কাজে সক্রিয় না থাকার অভিযোগ ছিল। আর এডিসি (ফরিদপুর) সাইফুল হাসানের বাবা বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রার্থী, মির্জা ফখরুলের ওপর হামলার ঘটনায় ঠাকুরগাঁয়ের ওসি মোস্তাফিজুর রহমান, মির্জা আব্বাসের ওপর হামলার ঘটনায় রমনার ওসি কাজী মাইনুল ইসলাম, মাহবুব উদ্দীন খোকনের ওপর হামলার ঘটনায় সোনাইমুড়ি থানার ওসি আব্দুল মজিব এবং ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগর থানার ওসি কবির হোসেনকে প্রত্যাহারের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।’

‘সেবাস্টিন রেমা একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তার দায়িত্ব পালন করছিলেন। তাকে এবং এডিসি সাইফুল হাসানকে প্রত্যাহার করে উপযুক্ত কর্মকর্তা নিয়োগ দেওয়ার জন্য জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়কে এবং ওসিদের প্রত্যাহার করে উপযুক্ত কর্মকর্তা পদায়ন করার জন্য মহা পুলিশ পরিদর্শকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।’

এর আগে বুধবার সন্ধ্যায় রাজধানীর আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে গিয়ে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদার সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন নোয়াখালী-১ (চটাখিল-সোনাইমুড়ীর একাংশ) আসনে বিএনপি প্রার্থী মাহবুব উদ্দিন খোকন। তিনি নির্বাচন কমিশনে (ইসি) গিয়ে তার ওপর হামলার ঘটনা বর্ণনা করেন ।

পরে মাহবুব উদ্দিন খোকন সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমি প্রার্থীদের নিরাপত্তার ব্যবস্থা করার জন্যও সিইসিকে বলেছি। আমি সোনাইমুড়ী থানার ওসির প্রত্যাহার চেয়েছি। চাটখিল থানার ওসির বিষয়েও তদন্ত করে তার প্রত্যাহার চেয়েছি।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Skip to toolbar