Home / বিভাগ / ‘প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় শিগগির ফরিদপুর বিভাগ বাস্তবায়ন’

‘প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় শিগগির ফরিদপুর বিভাগ বাস্তবায়ন’

দাবির পরিপ্রেক্ষিতে বিষয়টি প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলে দ্রুত বাস্তবায়নের আশ্বাস দেন মন্ত্রী।
দ্রুত বিভাগ বাস্তবায়নের দাবি নিয়ে ফরিদপুরে কর্মরত গণমাধ্যমকর্মীরা শনিবার দুপুরে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশাররফ হোসেনের সঙ্গে মতবিনিময় করেছেন।
ফরিদপুর প্রেসক্লাবে সভাপতি ইমতিয়াজ হাসান রুবেলের নেতৃত্বে সাংবাদিকরা  শনিবার ফরিদপুর শহরতলীর বদরপুরে মন্ত্রীর বাসভবনে তার সঙ্গে দেখা করেন।

এসময় সাংবাদিক নেতারা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘোষিত ফরিদপুর বিভাগ দ্রুত বাস্তবায়নের জন্য জোর দাবি তোলেন।

সাংবাদিকরা বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতীয় সংসদে ফরিদপুরকে বিভাগ করার ঘোষণা দিয়েছেন। ফরিদপুরবাসী অধীর আগ্রহে প্রধানমন্ত্রীর ওই ঘোষণার বাস্তবায়ন দেখতে অপেক্ষা করছে।

বিভাগ বাস্তবায়ন বিলম্বিত হলে সেক্ষেত্রে স্থানীয় বিশিষ্ট নাগরিক, পেশাজীবী ও সমাজের বিভিন্ন স্তরের লোকজন নিয়ে আন্দোলনে নামার কথা জানান গণমাধ্যমকর্মীরা।

এসময় এলজিআরডি মন্ত্রী ‘সাংবাদিকদের এ দাবি যৌক্তিক’ মন্তব্য করে জানান, তিনি বিষয়টি প্রধানমন্ত্রীর কাছে তুলে ধরবেন। তিনি বলেন, আপনাদের এই দাবি ফরিদপুরবাসীরও।

মন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী ফরিদপুরবাসীকে ভালোবাসেন, মন্ত্রিপরিষদে ফরিদপুরকে বিভাগ করা জন্য তিনিই আন্তরিকভাবে বিষয়টি উপস্থাপন করেছেন। আমার বিশ্বাস, তিনি ফরিদপুরের বিষয়টি দ্রুত বাস্তবায়নের জন্য দিকনির্দেশনা দেবেন।

এসময় সাংবাদিকদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- বাসসের প্রফেসর মো. শাহজাহান, প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মাহাবুবুল ইসলাম পিকুল, সহ-সভাপতি মশিউর রহমান খোকন, সাজ্জাদ হোসেন রনি, শেখ ফয়েজ আহমেদ, প্রথম আলোর পান্না বালা, কালের কণ্ঠের নির্মলেন্দু চক্রবর্তী শংকর, ইত্তেফাকের তরিকুল ইসলাম হিমেল, গাজী টিভির শেখ মনির হোসেন, একাত্তর টিভির মনিরুল ইসলাম টিটো, চ্যানেল আইয়ের শাহদাত হোসেন, এটিএন বাংলার কামরুজ্জামান সোহেল প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Skip to toolbar