Home / খবর / ফারুক একহাত নিলেন নাসির উদ্দীন ইউসুফকে

ফারুক একহাত নিলেন নাসির উদ্দীন ইউসুফকে

সম্প্রতি নিউইয়র্কে সাংস্কৃতিক অভিবাসীদের সমাবেশে প্রয়াত চলচ্চিত্র পরিচালক আতাউর রহমানকে ‘রাজাকার’ বলে মন্তব্য করেন আরেক চলচ্চিত্র পরিচালক নাসির উদ্দীন ইউসুফ। এ মন্তব্য শোনার পর পৃথকভাবে এর কঠোর সমালোচনা করেন নায়ক ফারুক ও আতাউর রহমানের ছেলে কণ্ঠশিল্পী আগুন। সেই ‘রাজাকার’ ইস্যুতে আবারও মুখ খুললেন ‘সারেং বউ’ ছবির নায়ক।

বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১১টায় সাম্প্রতিক এ বির্তকের জেরে এফডিসির জহির রায়হান ভিআইপি প্রজেকশন হলে সংবাদ সম্মেলেন ডাকে চলচ্চিত্রের বৃহত্তর সংগঠন বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিবার। অনুষ্ঠানে সবাই মুক্তিযুদ্ধে এবং বাংলাদেশ চলচ্চিত্রে আতাউর রহমানের অবদান তুলে ধরেন। সেখানে কথা বলেন নায়ক ও মুক্তিযোদ্ধা ফারুকও।

ফারুক তার বক্তব্যে বলেন, ‘খান আতা পরিচালিত ‘আবার তোরা মানুষ হ’ ছবিটি মুক্তি পায় ১৯৭৩ সালে। তখন বঙ্গবন্ধুর সরকার ক্ষমতায় ছিল। ছবিটি নিয়ে তখনই বিতর্ক তৈরি হয়েছিল। পরে মুক্তিযোদ্ধা ও বর্তমান ত্রাণ ও ব্যবস্থাপনা মন্ত্রী মোফাজ্জ্বল হোসেন মায়া ছবিটি রিভিউ করে এটি চালানোর অনুমতি দেন। মুক্তিযুদ্ধের সরকারই ছবিটি নিয়ে যখন আপত্তি করেনি তখন আপনি (নাসির উদ্দিন ইউসুফ) সেইটা নিয়ে কথা বলার কে? তার মানে আপনি স্বাধীনতার বিরুদ্ধে কথা বলছেন!’

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন নির্মাতা আমজাদ হোসেন, সিবি জামান, আজিজুর রহমান, মুশফিকুর রহমান গুলজার, খান আতার ছেলে কণ্ঠশিল্পী-অভিনেতা আগুনসহ আরও অনেকে। তারা সকলেই খান আতাকে নিয়ে তৈরি বিতর্কটি ব্যাখ্যা করার চেষ্টা করেন।

পরিচালক আজিজুর রহমান বলেন, ‘খান আতা মুক্তিযুদ্ধের সময় ঝুঁকি নিয়েও বাংলা চলচ্চিত্রে কাজ করেছেন। পাকিস্তানিদের হুমকি মাথায় নিয়েও যিনি কাজ করেছেন তিনি মুক্তিযোদ্ধা না রাজাকার? খান আতা ছিলেন, আছেন, থাকবেন।’

আরও আক্রমণাত্মক ভাষায় কথা বলেন পরিচালক সিবি জামান। তিনি বলেন, ‘খান আতার মতো মানুষকে যারা রাজাকার বলতে পারে তাদেরকে ঘৃণা করি।’ বক্তব্য পর্ব শেষে খান আতাউর রহমানের ‘আবার তোরা মানুষ হ’ ছবিটি প্রদর্শিত হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Skip to toolbar