Home / ফিচার / বলিউড তারকারা হিরানির পাশে

বলিউড তারকারা হিরানির পাশে

খ্যাতনামা চলচ্চিত্র নির্মাতা রাজকুমার হিরানির নামও বিশ্বের অন্যতম বড় ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি বলিউডে গত কয়েক মাস ধরে যে #মিটু ঝড় বইছে, সেই বাতাসে ভেসে এসেছে । তার বিরুদ্ধে অভিযোগ করেন এক সহকারী নারী পরিচালক। যিনি হিরানির ২০১৮ সালের সবচেয়ে ব্যবসাসফল ছবি নায়ক সঞ্জয় দত্তের বায়োপিক ‘সঞ্জু’তে কাজ করেছিলেন। ওই নারীর অভিযোগ, ‘সঞ্জু’ ছবির কাজ চলাকালীন নির্মাতা হিরানি নাকি তার সঙ্গে বাজে ব্যবহার এবং অফিসের ভেতরে ডেকে নিয়ে যৌন হেনস্তা করেছিলেন।

হিরানির ওই নারী সহকারী এই ঘটনার লিখিত নালিশ পাঠান প্রযোজক বিধুবিনোদ চোপড়া এবং তার স্ত্রী অনুপমা চোপড়ার কাছে। অনুপমা হচ্ছেন বিনোদ চোপড়া ফিল্মস প্রাইভেট লিমিটেডের একজন পরিচালক।  এই চিঠির কপি যায় চিত্রনাট্যকার অভিযাত যোশী ও বিনোদ চোপড়ার বোন শেলি চোপড়া ধরের কাছেও। গুঞ্জন রয়েছে, এই অভিযোগের জেরেই নাকি কোনো রকম তদন্ত ছাড়া  সোনম কাপুর অভিনীত ‘এক লাড়কি কো দেখা তো অ্যায়সা লাগা’ ছবির প্রযোজক হিসেবে হিরানির নাম বাতিল করে দেন বিধুবিনোদ চোপড়া।

পরিচালক হিরানির এই বিপদের মুহূর্তে পাশে দাড়িয়েছেন বলিউডের একাধিক তারকা। তাদের একজন প্রয়াত সুপারস্টার নায়িকা শ্রীদেবীর স্বামী প্রযোজক বনি কাপুর। তিনি টুইট করেছেন, ‘আমি এই অভিযোগ একেবারেই বিশ্বাস করছি না। রাজকুমার এ ধরনের কাজ করতেই পারে না।’

‘সিরিয়াল কিসার’ খ্যাত অভিনেতা ইমরান হাশমি লিখেছেন, ‘যতক্ষণ না পর্যন্ত এটা প্রমাণিত হচ্ছে, ততক্ষণ পর্যন্ত এই বিষয়ে মন্তব্য করা বা কোনো সিদ্ধান্ত নেওয়া বোকামি।’ ‘থ্রি ইডিয়টস’ ছবির অন্যতম অভিনেতা শরমন যোশীর মন্তব্য, ‘রাজু স্যার সম্পূর্ণ অন্য ধরনের ও চরিত্রে মানুষ। তিনি যে সততা ও সদগুণের অধিকারী, এমন মানুষ এই মুহূর্তে খুবই দুর্লভ।’ ‘মুন্নাভাই’ সিরিজের অন্যতম অভিনেতা আরশাদ ওয়ারসি বলছেন, ‘একজন খাটি ভদ্রলোকের বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ এলে শতভাগ সঠিক তথ্য জানতে হয়।’

অনেকে আবার এটাকে #মিটুর অপব্যবহার বলছেন। যেটা কয়েক মাস আগে বলেছিলেন সাবেক অভিনেত্রী রাবিনা ট্যান্ডনও। একে একে ইন্ডাস্ট্রির বড় বড় তারকাদের নাম জড়িয়ে পড়লে তিনি বলেছিলেন, ‘কেউ কেউ #মিটু’র সুযোগ নিচ্ছেন। কারও সঙ্গে কোনো ধরনের মতের অমিল বা ভুল বোঝাবুঝি থাকলে সেটাকেও যৌন হেনস্তা বলে প্রচার করছেন অনেকে। ’ এছাড়া কয়েকদিন আগে বলিউড নায়িকাদের নিয়ে প্রযোজক ও পরিচালক করণ জোহারের একটি গোলটেবিল আলোচনায় রানি মুখার্জীও একই মন্তব্য করেছিলেন।

কাজেই রাজকুমার হিরানির বিরুদ্ধে যৌন হেনস্তার অভিযোগও #মিটু’র অপব্যবহার কিনা সেই প্রশ্নই ঘুরপাক খাচ্ছে উপমহাদেশের সবচেয়ে বড় এ ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির অলিগলিতে। উত্তর মিলবে সময় হলেই। তবে ওই নারী সহকারীর দাবি, হিরানি তাকে একাধিকবার কুপ্রস্তাব দিয়েছেন। বিভিন্ন ছুতোয় বহুবার গায়ে হাত দিয়েছেন। ফোন করে বিভিন্ন জায়গায় যেতেও বলেছেন।

তার কথায়, ‘উনি (রাজকুমার হিরানি) যতটা ভালো মানুষের মুখোশ পরে থাকেন ততটা ভালো নন। ওনার ভেতরে জঘন্য এক পশুর চরিত্র বাস করে। যে নারীদের বিন্দুমাত্র সম্মান দিতে জানে না। নারী মাত্রই তার কাছে ভোগ্যপণ্য। এমন মানুষের কাছ থেকে নারীদের দুরূত্ব বজায় রেখে চলা উচিত।’

বলিউডে এই #মিটু ঝড় চালু করেছিলেন সাবেক ‘আশিক বানায়া আপনে’ অভিনেত্রী তনুশ্রী দত্ত। গত বছরের সেপ্টেম্বরে প্রভাবশালী অভিনেতা নানা পাটেকরের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্তার অভিযোগ এনে তিনি মামলা করেছিলেন। এরপরই একে একে বেরিয়ে আসে পরিচালক সাজিদ খান, সুভাষ ঘাই, বিকাশ বহেল, অভিনেতা অমিতাভ বচ্চন, অলোক নাথ এবং গায়ক অভিজিৎ ভট্টাচার্য ও কৈলাশ খেরদের মতো তারকাদের নাম।  তাদের সঙ্গে তালিকাভুক্ত হলেন পরিচালক রাজকুমার হিরানিও।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Skip to toolbar