Home / বিনোদন / বিক্রমের ভাগ্য হাইকোর্টের রায়ে ঝুলছে

বিক্রমের ভাগ্য হাইকোর্টের রায়ে ঝুলছে

 অভিনেতা বিক্রম চট্টোপাধ্যায় সাবেক প্রেমিকা সোনিকা সিং চৌহানের দুর্ঘটনায় মৃত্যুর ঘটনায় সব অভিযোগ থেকে অব্যাহিত চেয়ে কলকাতা হাইকোর্টে আবেদন করেছিলেন। সেই আবেদনের শুনানি শেষ হয়েছে সোমবার। তবে বিচারক এদিন কোনো রায় ঘোষণা করেননি। সব পক্ষের শুনানি শেষে বিচারপতি শিবকান্ত প্রসাদ জানান, তিনি পরে রায় দেবেন। কিন্তু কোনো দিন ধার্য করেননি। কাজেই বিচারকের সেই রায়ের ওপরই ঝুলে আছে অভিনেতা বিক্রমের ভাগ্য।

২০১৭ সালের ঘটনা। ওই বছরের ২৯ এপ্রিল টালিগঞ্জ থানা এলাকায় লেক মলের সামনে গাড়ি দুর্ঘটনায় নিহত হন বিক্রমের সে সময়কার প্রেমিকা অভিনেত্রী সোনিকা সিং চৌহান। গাড়ি চালাচ্ছিলেন অভিনেতা বিক্রম। দুর্ঘটনায় তিনি আহত হয়েছিলেন। তবে গুরুতর ছিল না। এই ঘটনায় পুলিশ প্রথমে বিক্রমের বিরুদ্ধে জামিনযোগ্য ধারায় মামলা করে তদন্ত শুরু করে। যার ফলে সুস্থ হয়ে আদালত থেকে জামিন নেন অভিনেতা।

কিন্তু তদন্তে নেমে পরবর্তীতে পুলিশ জানতে পারে, অতিরিক্ত নেশা করে বেপরোয়াভাবে সেদিন গাড়ি চালাচ্ছিলেন বিক্রম। আদালতে চার্জশিট দেয় পুলিশ। সেখানে উল্লেখ করা হয়, গাড়িটির ঘণ্টায় গতিবেগ ছিল ১০৫ কিলোমিটার। যার কারণে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সেটি উল্টে যায়। এরপরই মামলায় অনিচ্ছাকৃতভাবে মৃত্যু ঘটানোর ধারা যুক্ত করে তদন্তকারী পুলিশ।

এর প্রেক্ষিতে তার বিরুদ্ধে ওঠা সব অভিযোগকে মিথ্যা উল্লেখ করে আলিপুর জেলা আদালতে অব্যাহতির আবেদন করেন অভিনেতা। কিন্তু নিম্ন আদালত বিক্রমের সেই আবেদন খারিজ করে দেয়। এরপর মাস খানেক আগে কলকাতা হাইকোর্টের দারস্থ হন তিনি। তারই শুনানি হলো সোমবার। এখন আদালতের রায় বলবে, অভিনেতা সব অভিযোগ থেকে অব্যাহতি পাবেন নাকি অনিচ্ছাকৃত হত্যার দায় মাথায় নিয়ে হাজতবাস করবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Skip to toolbar