Home / আর্ন্তজাতিক / যৌথ দপ্তর চালু উত্তর এবং দক্ষিণ কোরিয়ার

যৌথ দপ্তর চালু উত্তর এবং দক্ষিণ কোরিয়ার

যৌথভাবে একটি মৈত্রী দপ্তর চালু করেছে দু’দেশের সম্পর্ক আরো জোরদার করার লক্ষ্যে উত্তর এবং দক্ষিণ কোরিয়া । আজ শুক্রবার উত্তর কোরিয়ার কেইসং শহরে দপ্তরটির কার্যক্রম শুরু করা হয়। মূলত প্রেসিডেন্ট মুন জায়ে ইনের আসন্ন পিয়ংইয়ং সফরকে কেন্দ্র করে উভয় পক্ষের মধ্যে যোগাযোগপ্রক্রিয়া আরো সহজ করতে মৈত্রী দপ্তরটি খোলা হয়েছে। যৌথ দপ্তর খোলার বিষয়ে দক্ষিণ কোরিয়ার পুনরেকত্রীকরণ মন্ত্রী চো মিয়াং গিয়ন জানিয়েছেন, ইতিহাসে এক নতুন অধ্যায় শুরু হল। সম্মিলিতভাবে প্রতিষ্ঠিত এই মৈত্রী দপ্তরটি উত্তর এবং দক্ষিণ কোরিয়ার মধ্যে শান্তির প্রতীক। এই ভবনটিতে উত্তর এবং দক্ষিণ কোরিয়ার আলাদা আলাদা অফিস ও একটি যৌথ কনফারেন্স কক্ষ রয়েছে। এছাড়াও সীমান্ত বিনিময় সহজতর করার লক্ষ্যেও ব্যবহৃত হবে ভবনটি।
সিউল এবং পিয়ংইয়ং এপ্রিল মাসে তাদের আলোচনার পর থেকে বিভিন্ন খাতে সম্মিলিত প্রকল্প বাস্তবায়ন করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। দ্রুতই মুন জায়ে ইন তৃতীয় বারের মত উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উনের সঙ্গে বৈঠকে বসবেন। আগামী সপ্তাহে তার পিয়ংইয়ং সফর করার কথা রয়েছে। উত্তর কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট মুন গতকাল বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্র উত্তর এবং দক্ষিণ কোরিয়ার মধ্যে শত্রুতাপূর্ণ স¤পর্ক শেষ করতে চায়। কিন্তু এখানে একটা সমস্যা রয়েছে। কেননা দুই দেশই চায়, প্রথমে অপরপক্ষ পদক্ষেপ নিক। মুন আরো বলেন, কিম জং কোরিয়া উপদ্বীপকে পরমাণু অস্ত্রমুক্ত করতে রাজি হয়েছেন। কিন্তু উভয়পক্ষ এ বিষয়ে বিস্তারিত কোন সিদ্ধান্তে পৌছতে পারেনি। ট্রাম্প-কিম বৈঠকের পর থেকে পিয়ংইয়ং ও ওয়াশিংটনের মধ্যে পারমাণবিক নিরস্ত্রীকরণ নিয়ে তর্ক-বিতর্ক চলছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Skip to toolbar