Home / অন্যান্য / নির্বাচন / ফখরুল আমাদের আদালতের বারান্দায় রেখে নির্বাচন নয়

ফখরুল আমাদের আদালতের বারান্দায় রেখে নির্বাচন নয়

মানহানির মামলায় বিচার শুরুর আদেশ হওয়ার পর আদালত চত্বর থেকে দলের কর্মসূচিতে যোগ দিয়েই বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, বিএনপিতে আদালতের বারান্দা বা কারাগারে রেখে নির্বাচনে জিতে ক্ষমতায় আসার চিন্তা আওয়ামী লীগকে ছাড়তে হবে।

সোমবার দুপুরে নয়াপল্টনের ভাসানী ভবনে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির সদস্য সংগ্রহ কার্যক্রম উদ্বোধন করতে গিয়ে একথা বলেন বিএনপি মহাসচিব। এই কর্মসূচিতে যোগ দেয়ার আগে ফখরুল ছিলেন ঢাকা মহানগর হাকির নুর নবীর আদালতে।

২০১৪ সালের ২৪ অগাস্ট এক আলোচনায় আওয়ামী লীগকে ‘খুনির দল’ এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ‘খুনি’ বলায় মানহানির মামলা হয়েছিল মির্জা ফখরুলের বিরুদ্ধে। এই মামলাতে সকালে মির্জা ফখরুলের বিচার শুরুর আদেশ হয়েছে আদালতে।

এই আদেশের সময় আদালতে উপস্থিত ছিলেন বিএনপি মহাসচিব। সেখান থেকে তিনি যান ভাসানী ভবনে। মির্জা ফখরুল বলেন, ‘বিএনপিকে কারাগারে রেখে এ দেশে আর কোন একদলীয় নির্বাচন হবে না।’

‘আমাদেরকে আদালতের বারান্দায় ঘোরাঘুরি করাবেন, কারাগারে বন্দি রাখবেন আর আপনারা মহা আনন্দে জনগণের ভোট লুঠ করে আবারও ক্ষমতায় আসবেন সে স্বপ্ন ভুলে যান।’-সরকারি দল আওয়ামী লীগকে উদ্দেশ্য করে বলেন মির্জা ফখরুল।

বিএনপি নেতা বলেন, ‘বিএনপি অবশ্যই নির্বাচন করবে। কিন্তু তা অবশ্যই নির্দলীয় সরকারের অধীনে। নির্বাচনের লেভেল প্লেইং ফিল্ড তৈরি করতে হবে। সবার জন্য সমান সুযোগ নিশ্চিত করতে হবে।’

ফখরুল বলেন, তিনি বলেন, ‘জনগণ আপনাদের (আওয়ামী লীগ)যন্ত্রণায় অতিষ্ট। তারা পরিবর্তন চায়। বিএনপিকে ক্ষমতায় দেখতে চায়।’

দলের নেতাকর্মীদের আন্দোলনের জন্য প্রস্তুত হওয়ার আহ্বান জানিয়ে বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘সদস্য সংগ্রহ একদিকে দলের সাংগঠনিক ভিত্তি মজবুত করবে অন্যদিকে সরকার পতনের পথকে ত্বরান্বিত করবে।’

ঢাকা মহানগরী দক্ষিণের সভাপতি হাবিব উন-নবী খান সোহেলের সভাপতিত্বে মহানগর দক্ষিণের সাধারণ সম্পাদক কাজী আবুল বাশারের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে বিএনপির প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দীন চৌধুরী এ্যানিসহ মহানগরের নেতারা বক্তব্য রাখেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*