Home / অন্যান্য / অপরাধ / বাংলাদেশী বালক বলাৎকার কুয়েতে

বাংলাদেশী বালক বলাৎকার কুয়েতে

বলাৎকার করা হয়েছে কুয়েতে এক বাংলাদেশী বালককে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত এক ব্যক্তিকে খুঁজছে কুয়েতের ফারওয়ানিয়া এলাকার গোয়েন্দারা। এক বাংলাদেশী তাদের কাছে অভিযোগ করেছেন। তিনি বলেছেন, তার আট বছর বয়সী বালককে বলাৎকার করা হয়েছে। তিনি বলেছেন, ওই ব্যক্তি তার ছেলেকে মিষ্টি দিয়ে প্রলুব্ধ করে ভবনের উপরের তলায় নিয়ে যায়। সেখানে তাকে ভয় দেখিয়ে বলাৎকার করে।

 এ অভিযোগের পর ওই বালকটিকে ফরেনসিক মেডিসিন বিভাগে নেয়া হয়েছে। এ খবর দিয়েছে অনলাইন কুয়েত টাইমস। ওদিকে উন্মুক্ত স্থানে ব্যবহৃত জিনিসপত্র বিক্রি করার অভিযোগে ১৯ জন অভিবাসীকে অভিবাসন বিভাগে বা মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে। তাদেরকে কুয়েত থেকে বের করে দেয়া হবে। তবে তারা কোন দেশের নাগরিক তা জানা যায় নি। গোপন খবরের ভিত্তিতে ঘটনাস্থলে গিয়ে পুলিশ অভিযান চালায়। গ্রেপ্তার করে ১৯ অভিবাসীকে। এর মধ্যে ভিক্ষা করার দায়ে গ্রেপ্তার করা হয়েছে জর্ডানের এক নারীকে। সবাইকে নিয়ে যাওয়া হয় জলিব পুলিশ স্টেশনে। সেখান থেকে তাদেরকে তুলে দেয়া হয় ডিপোর্টেশন ডিপার্টমেন্টে। এ ছাড়া বিরোধের জের ধরে এক ব্যক্তিকে ছুরিকাঘাত করেছে ৯ জন। তাকে দ্রুত নিয়ে যাওয়া হয়েছে মুবারক হাসপাতালে। তার মাথায় ছুরিকাঘাত করা হয়েছে। দ্রুত তাকে আইসিইউতে নিয়ে মাথায় ১৭টি সেলাই দেয়া হয়েছে। তার পরিচয়ও জানা যায় নি। তবে হামলাকারীরা স্থানীয় নাগরিক। তাদেরকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এ বিষয়ে তদন্ত অব্যাহত রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*