Home / ঢাকা / যাত্রীদের জিম্মি কারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার দাবি:যাত্রী অধিকার আন্দোলন

যাত্রীদের জিম্মি কারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার দাবি:যাত্রী অধিকার আন্দোলন

যাত্রী অধিকার আন্দোলন গণপরিবহনে যাত্রীদের জিম্মি কারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার দাবি জানিয়েছে । আজ বৃহস্পতিবার সকালে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে গণপরিবহনে যাত্রী হয়রানি বন্ধ, শিক্ষার্থীদের হাফ ভাড়া বাস্তবায়নসহ আট দফা দাবিতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ কর্মসূচীতে সংগঠনের আহ্বায়ক কেফায়েত শাকিল বলেন, নগরবাসীর চাহিদার বিবেচনায় চলতি বছরের এপ্রিল মাসে রাজধানীতে চলমান সিটিং সার্ভিসের নামে যাত্রী হয়রানি বন্ধের সিদ্ধান্ত নিয়েছিল সরকার। কিন্তু কতিপয় বাস মালিক-শ্রমিকের অঘোষিত পরিবহণ ধর্মঘটের অযুহাতে সেই সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসে বিআরটিএ। এসময় সুশৃঙ্খল গণপরিবহন ব্যবস্থা চালু করতে সরকার জনসাধারণের কাছে তিন মাস সময় চায়। কিন্তু ৩ মাসের পরিবর্তে ৭ মাস পেরিয়ে গেলেও এখনো কোনো কার্যকর ব্যবস্থা নিতে পারেনি তারা। যা নগরবাসীকে হতাশ করেছে।

 সরকারী প্রতিষ্ঠান বিআরটিএ’র উদাসীনতার সুযোগে পরিবহনগুলো এখন আরো বেপোরয়া হয়ে উঠেছে দাবি করে তিনি বলেন, আমরা লক্ষ্য করছি কারো অদৃশ্য ইশারায় জনগণের পরিবর্তে কতিপয় বাস মালিক-শ্রমিকের স্বার্থ হাসিলে ব্যস্ত হয়ে উঠেছে সরকারি এ প্রতিষ্ঠানটি। সেজন্য একের পর এক কাল ক্ষেপণ করছে তারা। সিএনজি অটোরিকশা চালকদের ডাকা ধর্মঘট কর্মসূচির সমালোচনা করে তিনি বলেন, সিএনজি অটোরিক্সা মালিক-চালকদের বেপোরয়া আচরণের কারণে সাধারণ যাত্রীরা তাদের থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছে। এতে ঈর্ষাপরায়ন হয়ে তারা আবারও ধর্মঘটের নামে নগরবাসীকে জিম্মি করার হুমকি দিচ্ছে। আমরা এই ধরণের কর্মসূচির তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই। আমরা সরকারের কাছে দাবি জানাই যারা সাধারণ যাত্রীদের জিম্মি করে কর্মসূচি দেয় তাদের কঠোর হস্তে দমন করতে হবে।
বাস মালিকদের সিএনজি থেকে শিক্ষা নেয়ার পারামর্শ দিয়ে তিনি বলেন, নৈরাজ্যের কারণে সিএনজি অটোরিকশার প্রতি মুখ ফিরিয়ে নিয়েছে যাত্রীরা। আপনারা অটোরিকশা থেকে শিক্ষা নিয়ে সিটিং সার্ভিসের নামে নৈরাজ্য বন্ধ করে যাত্রীবান্ধব পরিবহন ব্যবস্থা চালু করুন। নতুবা যে কোনো সময় আপনাদেরও বর্জনের ডাক দেবে নগরবাসী। এসময় তিনি নামে-বেনামে চালু হওয়া সিটিং সার্ভিসের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া, রাজধানীতে উন্নত পরিবহন ব্যবস্থা চালু করা, সড়ক দুর্ঘটনা রোধে মৃত্যুদণ্ডের বিধান রেখে আইন করা ও শিক্ষার্থীদের হাফ ভাড়া কার্যকর করাসহ সংগঠনের ঘোষিত আটদফা কর্মসূচি বাস্তবায়নে সরকারের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান। সংগঠনের যুগ্ম আহ্বায়ক অন্তু মুজাহিদের সভাপতিত্বে ও মুখপাত্র মাহমুদুল হাসান শাকুরির পরিচালনায় মানববন্ধনে আরো উপস্থিত ছিলেন, তরূণ প্রজন্ম বাংলাদেশের সমন্বয়ক জিহাদ আরিফ, যাত্রী অধিকার আন্দোলনের নেতা মাঈন উদ্দিন আরিফ, জোবাইদা, আনোয়ার হোসেন, এস এম সজিব, আনিছুর রহমান ও মোহাম্মদ সোহাগ প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Skip to toolbar