Home / খবর / ‘পুশব্যাক’ সীমান্তে আটক ৮৭ রোহিঙ্গার মধ্যে ৭৬ জনকেই বাংলাদেশে

‘পুশব্যাক’ সীমান্তে আটক ৮৭ রোহিঙ্গার মধ্যে ৭৬ জনকেই বাংলাদেশে

রোহিঙ্গা ইস্যুটি খুবই জটিল এ বছরের ৩১শে অক্টোবর পর্যন্ত ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তে বিএসএফ ৮৭ জন রোহিঙ্গাকে আটক করেছে। এর মধ্যে ৭৬ জনকেই বাংলাদেশে ‘পুশব্যাক’ করা হয়েছে। এই দাবি করেছেন বর্ডার সিকিউরিটি ফোর্স বিএসএফের মহাপরিদর্শক কে কে শর্মা। বিএসএফের বার্ষিক সম্মেলনে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি বলেন, রোহিঙ্গাদের গ্রেপ্তার করে বোঝা বাড়াতে  আগ্রহী নই আমরা। তিনি বলেছেন। আমাদের নীতি হলো রোহিঙ্গাদের গ্রেপ্তার না করে পুশব্যাক করা।

 রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশকারীদের গ্রেপ্তার করার অর্থই হলো তাদের দায় ঘাড়ে নেয়া। তাই আমরা তাদের পুশব্যাক করছি। শর্মা বলেন, বাংলাদেশে ৯-১০ লাখ রোহিঙ্গা রয়েছে। তাদের অনেকেরই ভারতে আসার আশঙ্কা রয়েছে। তবে তিনি স্বীকার করেছেন, যে সব রোহিঙ্গা সীমান্তে ধরা পড়েছে তাদের সঙ্গে জঙ্গি সংশ্রবের কোনো প্রমাণ তারা পান নি। শর্মা বলেছেন, ভারতের বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থা অবশ্য দাবি করেছে যে, কিছু রোহিঙ্গার আইএস ও ‘লস্কর- ই-তৈয়বার’ মতো সংগঠনের সঙ্গে যোগাযোগ রয়েছে। কেন রোহিঙ্গারা ভারতে আসতে চাইছে সে সম্পর্কে শর্মা বলেছেন, আটক রোহিঙ্গাদের জেরা করে জানা গেছে, কক্সবাজারে উদ্বাস্তু শিবিরগুলোতে থাকার সব সুবিধা না থাকায় তারা সেখানে থাকতে চাইছেন না। আর দালালরা ভালো কাজের লোভ দেখিয়ে তাদের ভারতে নিয়ে আসার চেষ্টা করছে। মহাপরিদর্শক আরো বলেছেন, ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তে অনুপ্রবেশের মতো সমস্যা মোকাবিলায় নজরদারি বাড়ানোর জন্য আরো ৫টি ব্যাটালিয়ন গড়ে তোলা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*