Home / রাজনীতি / ‘ পুলিশের ওপর হামলা চালিয়েছে অনুপ্রবেশকারীরা ’

‘ পুলিশের ওপর হামলা চালিয়েছে অনুপ্রবেশকারীরা ’

হাইকোর্টের সামনে পুলিশের সঙ্গে যে ঘটনা ঘটেছে তা বিভিন্ন গণমাধ্যমে এসেছে। আমরা নিজেরাই ওই ছেলেদের চিনতে পারছি নাবি এনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন  । আশঙ্কা করছি, অন্রপবেশকারীরা এই ঘটনা ঘটিয়েছে। আজ বুধবার সকাল সাড়ে ১১টায় নয়াপল্টস্থ বিএনপি কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন তিনি। এসময় বিএনপি মহাসচিব আরো বলেন, আমরা শান্তিপূর্ণভাবে প্রতিবাদ জানাচ্ছি, রাজনৈতিক কার্যক্রম পরিচালনার চেষ্টা করছি। কিন্তু সরকার উদ্দেশ্য প্রণোদিতভাবেই এটাকে বিনষ্ট করার জন্য কাজ করছে।

সবচেয়ে ভীতিকর বিষয় গত রাতে গয়েশ্বর রায়কে গেপ্তারের ঘটনা অনেক রাত পর্যন্ত পুলিশ স্বীকার করেনি। তিনি একজন বয়স্ক মানুষ, অসুস্থ মানুষ। তার ওষুধগুলো পর্যন্ত সেখানে নিতে দেয়নি। সকাল পর্যন্ত তাকে ওষুধ নিতে দেয়া হয়নি। গয়েশ্বর চন্দ্র রায়কে গ্রেপ্তার অশনি সংকেত উল্লেখ করে তিনি বলেন, তিনি কেবলমাত্র স্থায়ী কমিটির সদস্যই নয়, দীর্ঘ দিন যুবদলের নেতৃত্ব দিয়েছেন। স্বাধীনতার যুদ্ধে, স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলনে তার অবদান ছিল। তাকে এভাবে হঠাৎ তুলে নিয়ে যাওয়া অশনি সংকেত। আশঙ্কা করছি সরকার তার একদলীয় শাসন পাকাপোক্ত করার জন্য অর্থাৎ বিএনপিকে বাদ দিয়ে বিরোধীদলগুলোকে বাদ দিয়ে একদলীয় নির্বাচন করার নীলনকশার দিকে এগুচ্ছে। মির্জা ফখরুল বলেন, খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে একটি মিথ্যা মামলার রায়ের ঘোষণাকে কেন্দ্র করে আবার একটি অস্থিতিশীল অবস্থা সৃষ্টি করাই এদের মূল উদ্দেশ্য। এই অবস্থার সৃষ্টি করে তারা আবারও নির্বাচন থেকে দূরে রাখতে চাইছে। তারই নীল নকশা হিসেবে তারা আজকে এই পরিস্থিতিগুলো সৃষ্টি করছে। তিনি হুশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেন, অবিলম্বে গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, অনিন্দ্য ইসলাম অমিত, খোকনসহ সকলকে মুক্তি দিতে হবে। সকল রাজনৈতিক নেতা এখন পর্যন্ত যারা আছেন তাদের সকলকেই মুক্তি দিতে হবে। এই মুক্তি না দিলে রাজনৈতিক পরিস্থিতি সুস্থ স্বাভাবিক হবে না। এসময় তিনি গত রাতে নেতাদের বাসায় পুলিশী তল্লাশীর নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Skip to toolbar