Home / বিনোদন / ‘আমার কাছে ছোট নয় কোনো কাজই ’

‘আমার কাছে ছোট নয় কোনো কাজই ’

 টিভি নাটকের জনপ্রিয় অভিনৈত্রী নোভা। পাশাপাশি উপস্থাপক হিসেবেও বেশ প্রশংসা কুড়িয়েছেন ইতোমধ্যে। মিডিয়ার পাশাপাশি একটি প্রাইভেট প্রতিষ্ঠানের হেড অব কমিউনিকেশন অ্যান্ড কর্পোরেট অ্যাফেয়ার্স’ পদে কাজ করছেন। গেল বছরের নভেম্বর থেকে এই প্রতিষ্ঠানে কাজ শুরু করেন তিনি। এই কাজটি বেশ উপভোগ করছেন বলেও জানান।

নোভা বলেন, আমার অন্য কাজগুলো থেকে একেবারেই ভিন্ন এটি। আমার অফিসের পরিবেশটা খুবই সুন্দর। কখনও মনে হয় না আমাকে চেয়ার টেবিলের সঙ্গে বেঁধে দেওয়া হয়েছে। আর আমি যে কাজ করি সেটাও খুব মজার। সব থেকে মজার বিষয় হচ্ছে প্রথমদিকে চাকরিটা নিয়ে যখন কথা হয়, তখন আমি বলে দিয়েছি যে নাটক ছাড়তে পারবো না। যেহেতু আমি অভিনয়ের মানুষ তাই এই সুযোগটা দিতে হবে। তারাও এ বিষয়ে আমাকে বেশ সহযোগিতা করে। এদিকে এই অভিনেত্রী বর্তমানে আলভী আহমেদের ‘জেনারেশন’ রাজিবুল ইসলাম রাজিবের ‘বারো ঘরের এক উঠোন’ এবং আশিক মাহমুদ রনির ‘পাগলা হাওয়া’ শীর্ষক ধারাবাহিকের কাজ করছেন। ধারাবাহিকের পাশাপাশি একক নাটকেও রয়েছে তার ব্যস্ততা। সম্প্রতি ‘কমলার বনবাস’ শীর্ষক একক নাটকের কাজ শেষ করেন তিনি। এখানে তিনি অভিনয় করেছেন নেতিবাচক চরিত্রে। নাটকটি নিয়ে নোভা বলেন, দর্শকদের সামনে বিভিন্নভাবে নিজেকে উপস্থাপন করতে চাই। সেজন্যই নেতিবাচক চরিত্রে অভিনয় করেছি। এ ছাড়া আমি একজন অভিনেত্রী। তিনি আরো বলেন, আমি একটু বেছে কাজ করছি। যেহেতু এখন মিডিয়ায় একটু কম সময় দিচ্ছি তাই আরও একটু পরিচ্ছন্ন কাজ করার চেষ্টা থাকে। আগে যেমন মাসের ২০ দিনই অভিনয়ের জন্য সময় দিতে হতো, সেখানে এখন ছুটির দিনগুলো বেছে নিচ্ছি। আবার অনেক সময় দেখা যায় স্ক্রিপ্ট দেখে বুঝে তবেই সময় দিচ্ছি। এই অভিনেত্রী বাংলাভিশনে ‘সৌন্দর্য কথা’ ও বাংলাদেশ টেলিভিশনে ‘মালঞ্চ’ শীর্ষক দুটি অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করছেন। ২০০৭ সালে তিনি উপস্থাপনা শুরু করেন। ‘বউ কথা’ নামের একটি ফ্যামিলি গেইম শোর মধ্য দিয়ে এ অঙ্গনে অভিষেক হয় তার। প্রচার চলতি দুটি অনুষ্ঠান সম্পর্কে তিনি বলেন, সৌন্দর্য কথা অনুষ্ঠানটির জন্য সবার কাছ থেকে বেশ সাড়া পাচ্ছি। এদিকে ‘মালঞ্চ’ অনুষ্ঠানটির আমার মধ্য দিয়ে পরিবর্তন আনা হয়েছে। এই অনুষ্ঠানে নবীন-প্রবীণ সব ধরনের শিল্পী থাকেন। আসলে সংগীত জগতের এই সেক্টরে আমার তেমন একটা সম্পৃক্ততা ছিল না। বিগত চার পাঁচ মাসে বেশ এটি উপভোগ করছি। এই অভিনেত্রীর কাছে ক্যারিয়ারের শুরুর গল্প শুনতে চাইলে তিনি বলেন, আমার ক্যারিয়ার শুরু হয়েছিল মডেলিং দিয়ে। ২০০৫ সালে আমি প্রথম টিভিসি করি। ২০০৬ সালে ‘ইউ গট দ্য লুক’-এ চ্যাম্পিয়ন হই বেস্ট লুক ক্যাটাগরিতে। ‘ইউ গট দ্য লুক’ থেকে যারা আসেন তারা সবাই হয়তো মডেলিং নিয়ে ক্যারিয়ার শুরু করেন। কিন্তু আমার ক্ষেত্রে হয়েছিল ভিন্ন। আমি নাটকে ডাইভার্ট হয়ে যাই। আমার প্রথম অভিনীত নাটক ছিলো অনিমেষ আইচের নির্দেশনায় ‘প্রেম ও ঘামের গল্প’। এরপর অনেক নাটক ও বিজ্ঞাপনে কাজ করা হয়েছে। তবে বর্তমানে কোন কাজটিকে প্রাধান্য দেন? নোভার সহজ উত্তর আমি প্রতিটি কাজকে সমভাবে গুরুত্ব দিয়ে থাকি। কোনো কাজই আমার কাছে ছোট নয়। যখন যেটি করি তার প্রতি শতভাগ মনোযোগ থাকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Skip to toolbar