Home / খবর / শিক্ষামন্ত্রী ভালো মানুষ ‘চোরের রাজত্বে’: খালেদা

শিক্ষামন্ত্রী ভালো মানুষ ‘চোরের রাজত্বে’: খালেদা

বেগম খালেদা জিয়া বর্তমানে দেশে ‘চোরের রাজত্ব’ চলছে মন্তব্য করে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদকে ভালো মানুষ বলে প্রশংসা করেছেন।

শিক্ষা প্রশাসনে দুর্নীতির বিষয়ে আক্ষেপ জানাতে গিয়ে শিক্ষামন্ত্রীর ‘সহনীয় মাত্রায়’ ঘুষ খাওয়ার আহ্বান তুলে ধরতে গিয়ে বিএনপি নেত্রী এ কথা বলেন।

আগামী ৮ ফেব্রুয়ারি জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার রায়ের পাঁচ দিন আগে শনিবার বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সভা ডাকেন খালেদা জিয়া। রাজধানীর পাঁচ তারকা হোটেল লা মেরিডিয়ানে এই সভায় নিজের দুর্নীতি মামলার রায়ে ‘সঠিক’ বিচার না পাওয়ার আশঙ্কার কথা জানান খালেদা জিয়া। সেই সঙ্গে দল ভাঙার চেষ্টা হলে আর ক্ষমা করা হবে না বলেও সতর্ক করেন। জানান ‘বেঈমানদের’ নজরে রাখছেন তিনি।

এ সময় বর্তমান সরকারের বিরুদ্ধে বেপরোয়া দুর্নীতির অভিযোগ আনেন বিএনপি নেত্রী। আর এই অভিযোগ তুলতে গিয়ে শিক্ষামন্ত্রীর সাম্প্রতিক বক্তব্যের কথা তোলেন তিনি।

গত ২৪ ডিসেম্বর ঢাকায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পরিদর্শনকারী (ডিআইএ) উদ্দেশ্যে দেয়া এক বক্তব্য সহনীয় মাত্রায় ঘুষ খাওয়ার কথা বলে সমালোচিত হন শিক্ষামন্ত্রী।

তিন দিন পর সচিবালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে অবশ্য মন্ত্রী বলেন, তিনি যে কথা বলেছিলেন, সেটা বিএনপি আমলের উদাহরণ।

শিক্ষামন্ত্রীর প্রশংসা করে খালেদা জিয়া বলেন, ‘শিক্ষামন্ত্রী বলেছেন এমপি চোর, মন্ত্রী চোর, আমরা সবাই চোর, তিনি ভালো মানুষ বলে এটা বলেছেন।’

শিক্ষামন্ত্রীর বক্তব্যের বিষয়েই খালেদা জিয়া বলেন, ‘যেমন আমরা সবাই রাজা এই রাজার রাজত্বে- ঠিক তেমটি অবস্থা হয়েছে তাদের, ‘আমরা সবাই চোর, এই চোরের রাজত্বে।’

বিএনপি নেত্রী বলেন, ‘আওয়ামী লীগ ঘরে ঘরে চাকরি দেওয়ার কথা বলেছে। এখন সরকারি দলের লোক ছাড়া পিয়নের চাকরিও পাওয়া যায় না। তাও আবার তাদের ঘুষ দিতে হয়। পাঁচ লক্ষ, ১০ লক্ষ টাকা না হলে চাকরি পাওয়া যাচ্ছে না।’

খেলাপি ঋণ নিয়েও সমালোচনা করেন খালেদা জিয়া। বলেন, ‘ব্যাংকের টাকা লুট হচ্ছে। অর্থনৈতিক প্রতিষ্ঠান গুলো ধংস করার পাঁয়তারা করছে।’

‘কয়েক বছরে বাংলাদেশ থেকে হাজার হাজার কোটি টাকা সুইস ব্যাংকে জমা হচ্ছে। বিএনপির এত টাকা নেই সুইস ব্যাংকে রাখার।’

‘অনেকের পরিবার দেশের বাইরে বাড়ি বানাচ্ছে। দেশের টাকা বিদেশে পাঠিয়ে সেটেল হওয়ার চেষ্টা করছে। সরকারের ঘনিষ্ঠরা হাজার হাজার কোটি টাকার ব্যাংক ঋণ মওকুফ করাচ্ছে। আর বিএনপির লোকেরা ব্যবসা করার জন্য ব্যাংক ঋণ পাচ্ছে না।’

দেশে কোনো বিনিয়োগ হচ্ছে না অভিযোগ করে বিএনপি নেত্রী বলেন,‘ গুম, খুন, হত্যা হচ্ছে। তাই এই দেশে বিনিয়োগ করার পরিস্থিতি নেই। তাই এদেশে বিদেশিরা আসছে  না। দেশি প্রতিষ্ঠান বিনিয়োগের পরিবেশ পাচ্ছে না।’

‘আর এই জন্য নতুন শিল্পকারখানা গড়ে উঠছে না। এতে দিন দিন বেকারের সংখ্যা বাড়ছে। দরিদ্র আরও দরিদ্র হচ্ছে।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Skip to toolbar