Home / বিনোদন / ‘আমি এ কাজে সফল হবো আমার বিশ্বাস ’

‘আমি এ কাজে সফল হবো আমার বিশ্বাস ’

মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ প্রতিযোগিতার মধ্য দিয়ে আলোচনায় আসেন। জান্নাতুল নাঈম এভ্রিল। ভালোবাসা দিবস উপলক্ষে নির্মিত ‘তুমি ছাড়া ইম্পসিবল’ শিরোনামের একটি নাটকে তিনি অভিনয় করেছেন। আগামীকাল বাংলাভিশনে রাত ১১টা ২৫ মিনিটে এটি প্রচার হবে। নাটকটি নির্মাণ করেছেন রাশেদা আক্তার লাজুক। এই নাটকের মধ্য দিয়ে ছোট পর্দায় অভিষেক হচ্ছে এভ্রিলের।

বিশ্ববিদ্যালয় পড়–য়া দুজন তরুণ-তরুণীর মধ্যকার গল্প নিয়েই এই নাটকের মূল কাহিনী। বলা যায়, এটি একটি রোমান্টিক গল্পের নাটক। এটি নিয়ে এভ্রিল দারুণ আশাবাদি। তিনি বলেন, বিশ্বের বিভিন্ন দেশের মতো আমাদের দেশেও  এই দিবসটি তরুণ-তরুণীদের মধ্যে গভীরভাবে জায়গা করে নিয়েছে। টিভি চ্যানেলগুলোও অনেক আয়োজন করে। সেই আয়োজনের মধ্য দিয়ে আমার পর্দায় অভিষেক হচ্ছে এটি অনেক আনন্দের। এখন অপেক্ষায় আছি দর্শক আমাকে কিভাবে গ্রহণ করে। এভ্রিলের সঙ্গে এই নাটকে দেখা যাবে ‘গহীন বালুচর’খ্যাত অভিনেতা তানভিরকে। তবে এভ্রিল গেল বছরের শেষের দিকে প্রথম নাটকে অভিনয় করেছেন ছোট পর্দার জনপ্রিয় অভিনেতা সজলের সঙ্গে ‘এমনো তো প্রেম হয়’ শীর্ষক একটি নাটকে। এটি এখনো প্রচারে আসেনি। আহসান হাবিব সকালের রচনায় এটি পরিচালনা করেছেন জুনায়েদ বিন জিয়া। এই নাটকটি নিয়ে এভ্রিলের দারুণ অভিজ্ঞতা রয়েছে বলেও জানান। সেটি কি? এই প্রসঙ্গে তিনি বলেন, সজল ভাই আমার প্রথম ক্রাস। ছোটবেলা থেকে আমি তার দারুণ ভক্ত। প্রথম নাটকে আমি তাকে পাবো ভাবতে পারিনি। তার সঙ্গে অভিনয়ের কথা শুনেই আমি রাজি হয়ে যাই। সজল ভাই অনেক সহযোগিতা করেছেন অভিনয়ের সময়। কাজটি আমি স্বাচ্ছন্দ্যে করেছি। ছোট পর্দা থেকে এবার আসা যাক বড় পর্দায়। এ মাধ্যমে নাম লেখানোর জন্য এভ্রিল কতটুকু প্রস্তুত জানতে চাইলে বলেন, ছোট পর্দার কাজের মধ্য দিয়ে অভিনয় শিখছি। তবে আমি বড় পর্দায় কাজ করতে চাই। ভালো একজন নির্মাতার নির্দেশনায় ভালো কোনো শিল্পীর বিপরীতে আমি চলচ্চিত্রে আসতে চাই। চলচ্চিত্র অনেক বড় একটি মাধ্যম। এখানে দর্শক টাকা দিয়ে ছবি দেখে। তাই যেমন-তেমন ভাবে কাজ করে আমি সমালোচিত হতে চাই না। এদিকে শোবিজে পথচলার  পাশাপাশি এভ্রিল গরীব-অসহায় মানুষদের জন্য সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেন। এই শীতে তিনি প্রায় পাঁচশত শীতবস্ত্র বিতরণ করেছেন বলে জানান। অসহায় মানুষদের পাশে দাঁড়ানো প্রসঙ্গে এই গ্ল্যামার কন্যা বালেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকা থেকে শুরু করে কমলাপুর রেলস্টেশন পর্যন্ত রাস্তার পাশে শীতে কাতর প্রায় ৫০০ মানুষের মধ্যে শীতবস্ত্র দিয়েছি। রাতের বেলা অনেক অসহায় মানুষ দেখা যায় যারা শীতে কাতর হয়ে রাস্তায় শুয়ে থাকেন। শীত নিবারণের উপকরণ খুঁজে পান না। মানবেতর জীবনযাপন কারী সেই মানুষদের হাতে শীত সামগ্রী তুলে দিয়েছি। মানুষ হিসেবে এটি আমাদের কর্তব্য বলে আমি মনে করি। বিত্তবানদের উচিত গরীব-দুখীদের সহযোগিতা করা। অন্যদিকে এভ্রিল কাজ করছেন সারা দেশে বাল্যবিবাহ রোধে। এই কাজে তাকে সমর্থন দিয়েছেন সংগীতশিল্পী আসিফ আকবর। তিনি ছাড়াও আরো বেশ কয়েকজন তারকা এভ্রিলের সঙ্গে আছেন বলে জানান তিনি। সারাদেশে বাল্যবিবাহ রোধে একটি ফাউন্ডেশনও করেছেন এভ্রিল। বাল্যবিবাহের কারণে তাকে মুকুট হারাতে হয়েছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি। তবে এটি নিয়ে তার কোনো কোনো কষ্ট নেই বলে জানান। বাল্যবিবাহ প্রতিরোধ সম্পর্কে তিনি আরো বলেন, আমি আমার যোগ্যতায় এতটুকু আসতে পেরেছি তাতেই খুশি। এছাড়া দেশের মানুষ আমার পাশে ছিলেন এর চেয়ে বেশি আর কি হতে পারে। তবে কোনো মেয়েকে বাল্যবিবাহের কারণে যাতে নাজেহাল হতে না হয় সে লক্ষ্যে বাল্যবিবাহ রোধে কাজ করে যাচ্ছি। আমার বিশ্বাস আমি এ কাজে সফল হবো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Skip to toolbar