Home / খবর / প্রধানমন্ত্রী ৪১ প্রকল্পের উদ্বোধন ও ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন

প্রধানমন্ত্রী ৪১ প্রকল্পের উদ্বোধন ও ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শুধু জনসমাবেশেই অংশ নিবেন না, চট্টগ্রামের উন্নয়নে গৃহীত ৪১ প্রকল্পের উদ্বোধন ও ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন । এগুলোর মধ্যে চট্টগ্রাম শহরের জলাবদ্ধতা দূরীকরণ, কর্ণফুলী নদীর নাব্যতাবৃদ্ধি, বিদ্যুৎ সমস্যা নিরসন, সড়ক ও যোগাযোগ অবকাঠামোর উন্নয়ন, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অবকাঠামোগত উন্নয়ন এবং চট্টগ্রামের সাংস্কৃতিক চর্চার বিকাশ ঘটাতে গৃহীত প্রকল্প রয়েছে। এছাড়া চট্টগ্রামবাসীর দীর্ঘদিনের চাওয়া চট্টগ্রাম মুসলিম ইনস্টিটিউট সাংস্কৃতিক কমপ্লেক্স স্থাপনেরও ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন প্রধানমন্ত্রী। গতকাল সোমবার প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগসহ সরকারের বিভিন্ন দপ্তরে পাঠানো দাপ্তরিক পত্র সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে। এতে স্বাক্ষর করেন প্রধানমন্ত্রীর সহকারী একান্ত সচিব কাজী নিশাত রসুল। ওই পত্র সূত্রে জানা গেছে, প্রধানমন্ত্রী আগামীকাল সকাল সাড়ে দশটায় বিএন ডকইয়ার্ডে বঙ্গবন্ধু কমপ্লেক্সের উদ্বোধন করবেন। এছাড়া বাকিপ্রকল্পগুলোর ভিত্তিপ্রস্তর ও উদ্বোধন করবেন সমাবেশস্থল পটিয়া আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে।

যেসব প্রকল্পের উদ্বোধন করবেন : সিডিএর গৃহীত নগরীর মুরাদপুর ২নং গেইট এবং জিইসি মোড় জংশনে ফ্লাইওভার নির্মাণ (আক্তারুজ্জামান চৌধুরী ফ্লাইওভার), চট্টগ্রাম জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কমপেহ্মক্স ভবন, ৮ কিলোমিটার দীর্ঘ কালুরঘাট–মনসারটেক জাতীয় মহাসড়ক, ৮১ দশমিক ৯৮ মিটার দীর্ঘ পিসি গার্ডার সেতু (মিলিটারি সেতু) এবং পটিয়া–চন্দনাইশ বৈলতলী সড়কের খোদারহাট সেতুর (সেতুটি এই সড়কের ১৭ নম্বর সেতু, যার দৈর্ঘ্য ৩৪৮ দশমিক ১২ মিটার) উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী।

এছাড়া প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশ মহিলা সমিতি স্কুল এন্ড কলেজ এবং হাজেরা তজু ডিগ্রি কলেজের আইসিটি সুবিধাসহ ৫তলা একাডেমিক ভবন উদ্বোধন করবেন। একই সঙ্গে পৃথক চার উপজেলায় নির্মিত ৪টি কলেজের আইসিটি সুবিধাসহ ৪ তলা একাডেমিক ভবনের উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী। কলেজগুলো হচ্ছে পটিয়া উজেলার খলিল মীর ডিগ্রী কলেজ, বাঁশখালী উপজেলার পশ্চিম বাঁশখালী উপকূলীয় ডিগ্রী কলেজ, ফটিকছড়ি উপজেলার হোয়াকো বনানী কলেজ, রাঙ্গুনিয়া উপজেলার রাঙ্গুনিয়া মহিলা কলেজ, মীরসরাইয়ের প্রফেসর কামাল উদ্দিন চৌধুরী কলেজ।

প্রধানমন্ত্রী নাজিরহাট (মাইজভাণ্ডার সড়ক) শেখ রাসেল ভাস্কর্য এবং পটিয়া উপজেলার দক্ষিণ ভূর্ষি শেখ রাসেল মঞ্চের উদ্বোধন করবেন।

যেসব প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন : প্রধানমন্ত্রী যে সব প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন সেগুলো হচ্ছে চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের গৃহীত চট্টগ্রাম শহরের লালখান বাজার থেকে বিমান বন্দর পর্যন্ত এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে নির্মাণ, কর্ণফুলী নদীর তীর বরাবর ধরে কালুরঘাট সেতু হতে চাক্তাই খাল পর্যন্ত সড়ক নির্মাণ, চট্টগ্রাম শহরের জলাবদ্ধতা নিরসনকল্পে খাল পুনঃখনন, সম্প্রসারণ সংস্কার ও উন্নয়ন প্রকল্প।

এছাড়া পানি উন্নয়ন বোর্ডের গৃহীত সাতকানিয়া ও লোহাগাড়া উপজেলার সাঙ্গু ও ডলু নদীর তীর সংরক্ষণ প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন প্রধানমন্ত্রী। এছাড়া চট্টগ্রাম বন্দরের গৃহীত কর্ণফুলী নদীর সদরঘাট হতে বাকলিয়ার চর পর্যন্ত ড্রেজিং এর মাধ্যমে নাব্যতা বৃদ্ধি প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন।

আটটি বিদ্যুৎ উপকেন্দ্র বা ৩৩/১১ কেভি বিশিষ্ট নতুন জিআইএস উপকেন্দ্র নির্মাণের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন প্রধানমন্ত্রী। বিদ্যুৎ উপকেন্দ্রগুলো স্থাপন করা হবে নগরীর অনন্যা আবাসিক এলাকা, মইজ্যারটেক, রহমতগঞ্জ, কালুরঘাট, অক্সিজেন, কাট্টলী, মনসুরাবাদ, এফআইডিসি ও কল্পলোক আবাসিক এলাকায়।

প্রধানমন্ত্রী বিভিন্ন উপজেলার চারটি সড়ক–মহাসড়ক প্রশস্তকরণ ও উন্নয়ন প্রকল্পেরও ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন। এগুলো হচ্ছে– কেরাণীহাট–সাতকানিয়া–গুণাগরী মহাসড়ক প্রশস্তকরণ ও উন্নয়ন প্রকল্প, পটিয়া–আনোয়ারা–বাঁশখালী–টইটং আঞ্চলিক মহাসড়ক প্রশস্তকরণ ও উন্নয়ন প্রকল্প, মীরসরাই উপজেলায় বড়তাকিয়া (আবু তোরাব) থেকে মীরসরাই অর্থনৈতিক অঞ্চল সংযোগ সড়ক নির্মাণ, বারৈয়ারহাট (চট্টগ্রাম জোন)-হোঁয়াকো–নারায়ণহাট–ফটিকছড়ি আঞ্চলিক মহাসড়ক প্রশস্তকরণ ও উন্নয়ন প্রকল্প।

প্রধামন্ত্রী ২টি গার্ডার ব্রিজ ও একটি সেতু নির্মাণ প্রকল্পেরও ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন। এগুলো হচ্ছে–পটিয়ার রাজাঘাট শ্রীমাই খালের উপর আরসিসি গার্ডার ব্রিজ নির্মাণ, ফটিকিছড়ি উপজেলার নাজিরহাট জিসি–কাজীরহাট–জিসি সড়কেরর মন্দাকিনী খালের উপর আরসিসি গার্ডার ব্রিজ নির্মাণ এবং জরাজীর্ণ ও সংকীর্ণ কালারপোল সেতু নির্মাণ প্রকল্প।

এছাড়া প্রধানমন্ত্রী পটিয়ায় পিটিআই এর একাডেমিক ভবন নির্মাণ, সীতাকুণ্ড টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজের ওয়ার্কশপ বিল্ডিংসহ পাঁচতলা একাডেমিক কাম প্রশাসনিক ভবন নির্মাণ, চট্টগ্রাম সরকারি মহিলা কলেজের ১০০ শয্যার ছাত্রী নিবাস নির্মাণের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করবেন। পাশাপাশি পোস্তারপাড় আছমা খাতুন সিটি করপোরেশন মহিলা কলেজ ও আগ্রাবাদ মহিলা কলেজের আইসিটি সুবিধাসহ পাঁচতলা একাডেমিক ভবন নির্মাণের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন।

গণপূর্ত বিভাগের উদ্যেগে চট্টগ্রাম মুসলিম ইনস্টিটিউট সাংস্কৃতিক কমপ্লেক্স স্থাপন, পটিয়ায় পৌর মাল্টিপারপাস কিচেন মার্কেট নির্মাণ এবং কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের হর্াটিকালচার নির্মাণেরও ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*