Home / খবর / ভ্রাম্যমাণ আদালত বর্ষবরণে যৌন হয়রানি রোধে থাকছে

ভ্রাম্যমাণ আদালত বর্ষবরণে যৌন হয়রানি রোধে থাকছে

র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) পয়লা বৈশাখে নারীদের যৌন হয়রানি বন্ধে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করবে।

শুক্রবার রমনা বটমূলে এক সংবাদ সম্মেলনে র‌্যাবের মহাপরিচালক বেনজির আহমেদ এই কথা জানান।

র‌্যাবপ্রধান বলেন, ‘নারীদের যৌন হয়রানিসহ অন্যান্য অপরাধে তাৎক্ষণিক সাজার ব্যবস্থা করতে রমনা বটমূল ও হাতিরঝিল এলাকায় র‌্যাব ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করবে।’ নিরাপত্তা নিশ্চিতে র‌্যাবের হেলিকপ্টার আকাশ থেকে টহল দেবেও বলে জানান তিনি।

২০১৫ সালে পয়লা বৈশাখে বর্ষবরণের অনুষ্ঠানে নারীদের যৌন হয়রানির ঘটনা দেশ-বিদেশে আলোড়ন সৃস্টি করে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি সংলগ্ন সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের ফটকে ভিড়ের মধ্যে একদল যুবক নারীদের যৌন হয়রানি করে। তবে এর সঙ্গে কারা জড়িত এখনো শনাক্ত করতে পারেনি আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। পরের বছর থেকে বর্ষবরণ অনুষ্ঠানে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী এ ব্যাপারে বিশেষ সতর্ক।

এবারের নিরাপত্তা বিষয়ে র‌্যাব মহাপরিচালক বলেন, সার্বিক নিরাপত্তার জন্য আমরা রমনা বটমূলের পাশাপাশি হাতিরঝিলেও কন্ট্রোল রুম স্থাপন করেছি। রমনার লেকে ডুবুরি দল থাকবে, পেট্রোল দল থাকবে। রমনা হাতিরঝিলে জেড স্কি দিয়ে পেট্রোল করা হবে, যাতে কোনো দুর্ঘটনা না ঘটে।  পাশাপাশি আমরা আকাশ থেকে পর্যবেক্ষণ করবো। হেলিকপ্টার পেট্রোলিং করবে। মঙ্গল শোভাযাত্রার সময় আকাশে র‌্যাবের হেলিকপ্টার টহল দেবে। আমাদের সাদা পোশাকে, ফুট পেট্রোল, অবজারবেশন পোস্ট থাকবে। সিসিটিভির মাধ্যমে আমরা পুরো অঞ্চল পর্যবেক্ষণ করব।

বেনজির বলেন, আশপাশের বসতি ও হোটেলগুলোতে আমাদের অভিযান চলছে। সন্দেহভাজনদের ধরার জন্য এই অভিযান। জঙ্গিবাদী কার্যক্রমের ওপর আমরা দৃষ্টি রাখছি। নিরাপত্তাব্যবস্থার পাশাপাশি রমনা ও হাতিরঝিলে বয়স্ক, নারী ও শিশুদের বিশ্রামের জন্য বৈশাখী লাউঞ্জ তৈরি করা হয়েছে।

মিডিয়াতে যাতে কেউ উস্কানি ছড়াতে না পারে সেজন্য  মিডিয়া পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, বিভিন্ন মিডিয়াতে কে কী বলছে সেগুলো আমরা পর্যবেক্ষণ করছি।  আমরা প্রিন্ট, ইলেক্ট্রনিক, সোশ্যাল মিডিয়া পর্যবেক্ষণ করছি। কেউ উস্কানিমূলক আচরণ করলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*