Home / অন্যান্য / অপরাধ / নিহত ১ আহত ৭ আওয়ামী লীগের দুপক্ষের সংঘর্ষ, বেরাইদে

নিহত ১ আহত ৭ আওয়ামী লীগের দুপক্ষের সংঘর্ষ, বেরাইদে

একজন গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা গেছেন অভ্যন্তরীণ বিরোধের জেরে রাজধানীর বেরাইদে সংসদ সদস্য (এমপি) একেএম রহমত উল্লাহ’র সমর্থক ও ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলমের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে । নিহতের নাম: কামরুজ্জামান দুখু (৪০)। তিনি ভাটারা থানার বেরাইদ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও বাড্ডা থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলমের চাচাতো ভাই। আহতরা হলেন- সানি (৩০), শরীফ (৩৫), কামাল (৩০), বাদল (৪০), নাজির হোসেন (৩৫), তাজ মোহাম্মদ (৩৪) ও একজন বিদেশি। তবে ওই আহত বিদেশির নাম জানা যায়নি। রোববার বিকালে বেরাইদের ক্রাউন সিমেন্ট ফ্যাক্টরির কাছে প্রধান সড়কে এ ঘটনা ঘটে।

এলাকায় দীর্ঘদিন ধরে এম রহমতউল্লাহর ভাগ্নে ফারুক হোসেন এবং স্থানীয় চেয়ারম্যান জাহাঙ্গির হোসেনের মধ্যে বিরোধ চলে আসছে। আগামী ইউনিয়নের পরিষদের চেয়ারম্যান পদে মনোনায়নকে কেন্দ্র করে এ বিরোধ আরও জোরালো হয়। স্থানীয় এমপির পূত্র হেদায়েত উল্লাহ মনোনায়ন প্রত্যাশা করে এলাকায় বিভিন্ন পোস্টার ছাপিয়েছেন। এতে স্থানীয় চেয়ারম্যান জাহাঙ্গির আলম তার প্রতি নাখোশ।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র বলছে, এমপি রহমত উল্লাহ’র ভাগ্নে ফারুক আহমেদের নেতৃত্বে ৫০/৬০ জন বিকেল সাড়ে ৪ দিকে জাহাঙ্গীরের সমর্থকদের ওপর হামলা চালায়। এ সময় জাহাঙ্গীরের সমর্থকরা প্রতিরোধ করতে গেলে উভয় পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ বেধে যায়।
স্থানীয় বাসিন্দা আব্দুর রহিম জানান, নিহত কামরুজ্জামান ক্রাউন সিমেন্ট ফ্যাক্টরিতে ঠিকাদারের কাজ করতেন। বিকেল সাড়ে ৪ দিকে তিনি ফ্যাক্টরির কাছে কয়েকজনকে নিয়ে কাজ করছিলেন। এ সময় এমপির ভাগ্নে ফারুকের নেতৃত্বে তাদের ওপর গুলি চালানো হয়।

খুনের ঘটনায় এলাকায় টান টান উত্তেজনা বিরাজ করছে। সংঘর্ষ এড়াতে এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Skip to toolbar