Home / খবর / ‘অনেক শেখার আছে শেক্সপিয়ারের কাছে বর্তমান প্রজন্মের ’

‘অনেক শেখার আছে শেক্সপিয়ারের কাছে বর্তমান প্রজন্মের ’

র‌্যাবের মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ ইংরেজ মহাকবি উইলিয়াম শেক্সপিয়ারের কাছে বর্তমান প্রজন্মের অনেক কিছু শেখার বলে মন্তব্য করেছেন। তিনি বলেছেন, ‘তখনকার সমাজ বাস্তবতায় শেক্সপিয়ার প্রভাবশালীদের বিরুদ্ধে লিখেছেন। তিনি ছিলেন শোষিতের পক্ষে স্বোচ্চার।’

সোমবার বরিশালে শেক্সপিয়ারের ৪৫৪তম জন্মবার্ষিকীর এক অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন বেনজীর আহমেদ। একই অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজের শিক্ষকবৃন্দ এবং র‌্যাব-পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

র‌্যাব মহাপরিচালক বলেন, ‘শেক্সপিয়ার শুধু ইংরেজী সাহিত্যকেই সমৃদ্ধ করেননি, তিনি ইংরেজী ভাষাকেও সমৃদ্ধ করেছেন। এমনকি সৃষ্টি করেছেন ১৭শ’র বেশি শব্দ। অবশ্য কারো কারো মতে এ সংখ্যা আরও বেশি।’

‘এ ইংরেজ মহাকবি তখনকার প্রভাবশালীদের বিরুদ্ধে লিখেছেন, লিখেছেন শোষিতদের পক্ষে। তার কাছ থেকে আমাদের বর্তমান প্রজন্মের অনেক কিছুই শেখার আছে’- বলেন বেনজীর।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সরকারি বরিশাল কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক খন্দকার অলিউল ইসলাম। অন্যদের মধ্যে আলোচনা করেন বরিশাল  বিশ^বিদ্যালয়ের ইংরেজী বিভাগের শিক্ষক অধ্যাপক ড. মু. মুহসিন উদ্দিন, সরকারি বিএম কলেজের ইংরেজী বিভাগের সাবেক প্রধান অ্যধাপক এইচএম মাহবুবুল আলম।

এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন বরিশাল রেঞ্জ ডিআইজি শফিকুল ইসলাম, বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার এস এম রুহুল আমীন, বরিশাল ব্রজমোহন (বিএম) কলেজের অধ্যক্ষ শফিকুর রহমান সিকদার প্রমূখ।

এর আগে সকালে হেলিকপ্টার যোগে বরিশাল র‌্যাবের সদর দপ্তরে সংস্থাটির মহাপরিচালক বেনজির আহম্মেদ। তাকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান বরিশাল রেঞ্জ ডিআইজি শফিকুল ইসলাম।

প্রসঙ্গত, ইংরেজ মহাকবি উইলিয়াম শেক্সপিয়ার ১৫৬৪ সালের ২৩ এপ্রিল স্ট্রাটফোর্ড-আপন-আভন নামক একটি মফস্বল শহরে জন্মগ্রহণ করেন। তবে তার জন্মতারিখটা অনুমান নির্ভর বলে মনে করেন সাহিত্যবোদ্ধারা। অবশ্য স্ট্রাটফোর্ড হলি ট্রিনিটি চার্চে ২৬ এপ্রিল তার যে ব্যাপ্টিজম হয়, তার প্রমাণ রয়েছে নথিতে। ইংল্যান্ডে তখন যে কোনো শিশু জন্মানোর তিনদিন পর তার ব্যাপ্টিজম বা নামকরন হতো। সে হিসেবে শেক্সপিয়ারের জন্মতারিখ ২৩ এপ্রিল ধরা হয়। শেক্সপিয়ার মারাও যান ২৩ এপ্রিল। সালটা ছিল ১৬১৬।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Skip to toolbar