অলিম্পিক জিকা আতঙ্ক সত্ত্বেও ব্রাজিলেই হবে

25
jakia..brazil_114396
ঢাকা ২৮ মে : বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) জিকা ভাইরাসের ব্যাপক সংক্রমণের কারণে ব্রাজিল থেকে অলিম্পিক ভেন্যু সরানো অথবা এ বছর অলিম্পিক স্থগিত রাখার আহ্বান নাকচ করে দিয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্যসহ বিশ্বের শীর্ষ ১৫০ বিজ্ঞানী, চিকিৎসক স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে রিও অলিম্পিক বন্ধ বা স্থগিতের পরামর্শ দিয়েছিলেন। এদের মতে, ব্রাজিলের মশা নিধন কর্মসূচির ব্যর্থতা এবং স্বাস্থ্য খাতের বেহাল দশার কারণে জিকা আরো ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা আছে, যা বিশ্বের জনস্বাস্থ্যের জন্য হুমকির।

চিঠিতে আরো বলা হয়, রিও অলিম্পিক দেখতে সারা বিশ্ব থেকে পাঁচ লাখের বেশি মানুষ ব্রাজিলে যাবে। এদের অনেকেই হয়তো জিকা ভাইরাসে আক্রান্ত হবে। পরে দেশে ফিরলে জিকা ভাইরাস সেখানেও ছড়িয়ে পড়তে পারে। এভাবে অনেক গরিব দেশেও জিকা ছড়িয়ে পাড়বে।

বিজ্ঞানী ও চিকিৎসকদের চিঠির উত্তরে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা জানায়, রিও অলিম্পিক জিকা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ায় বড় কোনো পরিবর্তন আনবে না। আর আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটি জানায়, মশাবাহিত রোগ জিকার কারণে রিও অলিম্পিক দেরি করার কোনো কারণ নেই। আগামী ৫ আগস্ট থেকে ২১ আগস্ট পর্যন্ত অলিম্পিক অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা।

বিজ্ঞানী ও চিকিৎসকদের স্বাক্ষরিত চিঠিতে জিকা থেকে রক্ষায় করণীয় হিসেবে ডব্লিউএইচওর নির্দেশিকায় পরিবর্তন আনতে বলা হয়।

প্রায় এক বছর আগে ব্রাজিলে জিকা ভাইরাসের প্রকোপ শুরু হয়। বর্তমানে বিশ্বের ৬০টি দেশ ও অঞ্চলে এই ভাইরাস ছড়িয়ে পড়েছে। জিকা ভাইরাসের হালকা প্রকোপেই তুলনামূলক ছোট মাথা নিয়ে শিশুর জন্ম হয়। এ ছাড়া জিকা আক্রান্ত ব্যক্তিদের মধ্যে বিরল ও দুরারোগ্য স্নায়বিক জটিলতা দেখা দেয়।