ব্রেকিং নিউজ
Home / খবর / আকিজ সেই করোনা হাসপাতালের সরঞ্জাম পুলিশকে দিল

আকিজ সেই করোনা হাসপাতালের সরঞ্জাম পুলিশকে দিল

দেশের শীর্ষস্থানীয় ব্যবসায়িক গ্রুপ আকিজ বিনামূল্যে করোনা আক্রান্তদের চিকিৎসায় চীনের উহানের স্টাইলে রাতারাতি একটি হাসপাতাল তৈরির উদ্যোগ নিয়েছিল। তবে স্থানীয়দের বাধা এবং স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের অসহযোগিতায় হাসপাতালটি শেষ পর্যন্ত হয়নি। সেই হাসপাতালের আইসোলেসন বেড ও চিকিৎসা সরঞ্জাম নিয়ে পুলিশের পাশে দাঁড়িয়েছে আকিজ গ্রুপ। প্রতিষ্ঠানটি পুলিশ হাসপাতালের জন্য শতাধিক আইসোলেসন বেড, আইসিইউ ও কার্ডিয়াক মেশিনসহ বিভিন্ন উন্নত চিকিৎসা যন্ত্রপাতি হস্তান্তর করেছে।

রবিবার দুপুরে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামালের হাতে এসব চিকিৎসা সরঞ্জাম তুলে দেন আকিজ গ্রুপের বর্তমান চেয়ারম্যান শেখ নাসির উদ্দিন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মোস্তাফা কামাল উদ্দীন, পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. বেনজীর আহমেদ।

ঢাকা টাইমসকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল।

দেশে করোনার সংক্রমণ ধরা পড়লে রাজধানীর তেজগাঁও শিল্প এলাকায় পাঁচবিঘা জমিতে অস্থায়ী হাসপাতাল নির্মাণ শুরু করে সর্বোচ্চ করদাতা প্রতিষ্ঠান আকিজ গ্রুপ। দ্রুত সময়ের মধ্যেই সেখানে করোনা চিকিৎসায় তিনশ শয্যা মেডিকেল তৈরির কাজ প্রায় অর্ধেকে শেষ হয়েছিল। কিন্তু হাসপাতালটি এখানে হলে তারা করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হবে এমন গুজব ছড়িয়ে নির্মাণকাজ বন্ধ করে দেয় স্থানীয়রা। গত ২৮ মার্চ কয়েকশ স্থানীয় মানুষ একত্রিত হয়ে হাসপাতালে হামলা চালায়। পিটিয়ে আহত করে হাসপাতালের নির্মাণ শ্রমিক ও নিরাপত্তা রক্ষীদের। এই ঘটনার স্থানীয় কাউন্সিলর শফিউল্লাহ শফি প্রধান উস্কানিদাতা ছিলেন বলে অভিযোগ রয়েছে। তবে, বরাবরই তিনি এই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।

কাজ বন্ধের দিনই স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করেন আকিজ গ্রুপের কর্তা-ব্যক্তিরা। মন্ত্রী (স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী) স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের আনুষ্ঠানিকতা শেষে কাজ শুরু হবে বলে তাদের আশ্বস্ত করেন। দীর্ঘদিন মন্ত্রণালয়ের অনুমতির আশায় থাকলেও স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে কোনো সাড়া মেলেনি।

আকিজ গ্রুপ ৩০০ শয্যার এই হাসপাতালে ১৬টি আইসিইউ, ২৫টি আইসোলেশন বেডসহ চারটি ওয়ার্ডে পুরুষ-মহিলাদের ২৫৯টি বেডের ব্যবস্থা করার পরিকল্পনা নিয়েছিল।

দেশব্যাপী করোনা প্রাদুর্ভাবে প্রতিদিনই বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। বাড়ানো হচ্ছে করোনা শনাক্তের ল্যাব। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনায় আক্রান্ত হয়ে আরও সাতজনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে প্রাণঘাতী ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়ে বাংলাদেশে মৃতের সংখ্যা দাঁড়ালো ৯১ জনে। এছাড়া নতুন করে আরও ৩১২ জনের শরীরে প্রাণসংহারি ভাইরাসটি সংক্রমিত হওয়ায় আক্রান্ত বেড়ে হয়েছে ২৪৫৬ জন।

আকিজের পক্ষ থেকে পুলিশ হাসপাতালের জন্য চিকিৎসা সরঞ্জামের মধ্যে রয়েছে- ১০০টি আইসোলেসন বেড, আইসিইউ ও কার্ডিয়াক মেশিন, অক্সিজেন সিলিন্ডার, ডাক্তারদের জন্য হেলমেট টাইপ পিপি, স্প্রেরুম এবং অনান্য মেডিকেল ইকুইপমেন্ট।

আকিজ গ্রুপের চেয়ারম্যান শেখ নাসির উদ্দিন বলেন, ‘দেশের এই ক্লান্তিকালে সামান্য চিকিৎসা উপকরণ পুলিশের হাতে দিয়েছি। সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকে এটা করেছি। যাতে আক্রান্ত মানুষ চিকিৎসা পেতে পারেন।’

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেন, ‘আজ দুপুরে তারা আমার হাতে উন্নত ও দামি সরঞ্জাম হস্তান্তর করেছে। ফলে আমাদের চিকিৎসা দিতে আরও ভালো হবে।’

তারা কি হাসপাতাল করছে না জানতে চাইলে মন্ত্রী বলেন, ‘সেটা জানি না। তবে তাদের অস্থায়ী হাসপাতালের জন্য কেনা সরঞ্জামের কিছু আমাদের কাছে দিয়ে গেছেন।’

এর আগে তেজগাঁওয়ে নিজেদের সবচেয়ে বড় ওয়্যারহাউজটি বন্ধ করে করোনা আক্রান্তদের বিনামূল্যে চিকিৎসার ঘোষণা দেয় আকিজ গ্রুপ। সেখানে থাকা বিভিন্ন যন্ত্রপাতি, মালামাল সরিয়ে জায়গাটি পরিষ্কার করা হয়। প্রস্তুতিও চলছিল চীনের উহান শহরের মতো অস্থায়ী আধুনিক হাসপাতাল নির্মাণের। দেশে একমাত্র করোনা শনাক্তে কিট তৈরির অনুমতি গণস্বাস্থ্যকে দিয়েছে সরকার। তাই গণস্বাস্থ্যের কাছ থেকে কিট কেনার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল আকিজ। এতে সহজেই সাধারণ মানুষ বিনামূল্যে এখান থেকে করোনা পরীক্ষা করাতে পারত। তবে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের অনীহার কারণে শেষ পর্যন্ত হাসপাতালটি হয়নি বলে জানা গেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

%d bloggers like this: