Home / এনজিও / আত্মরক্ষায় মেয়ে শিক্ষার্থীদের প্রশিক্ষণে বরাদ্দের দাবি

আত্মরক্ষায় মেয়ে শিক্ষার্থীদের প্রশিক্ষণে বরাদ্দের দাবি

wঢাকা: এই দেশে নারী ও কিশোরী নির্যাতন বৃদ্ধির পাচ্ছে। এই প্রেক্ষাপটে মেয়ে শিক্ষার্থীদের নির্যাতন থেকে আত্মরক্ষায় সক্ষম করে তোলা প্রয়োজন। এ বিষয়ে বিদ্যালয়ে ও কমিউনিটিতে মেয়েদের দক্ষতা বৃদ্ধি প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করতে হবে। তাই এই খাতে সরকারকে পর্যাপ্ত বাজেট বরাদ্দ রাখার দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ নারী প্রগতি সংঘ (বিএনপিএস)।

আজ বুধবার জাতীয় প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে এই দাবি জানানো হয়। জাতীয় নারী উন্নয়ন নীতি-২০১১ বাস্তবায়নে গৃহীত জাতীয় কর্মপরিকল্পনার ধারাবাহিক বাস্তবায়ন ও শিক্ষার গুণগত মান নিশ্চিত করতে আগামী বাজেটে সুনির্দ্দিষ্ট বরাদ্দের দাবিতে আয়োজিত এই সংবাদ সম্মেলন সভাপতিত্ব করেন বিএনপিএস-এর নির্বাহী পরিচালক রোকেয়া কবীর। মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বিআইডিএস-এর সিনিয়র রিসার্চ ফেলো ড. নাজনীন আহমেদ। বক্তৃতা করেন অর্থনীতিবিদ ড. প্রতিমা পাল মজুমদার, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সহযোগী অধ্যাপক ড. সায়মা হক বিদিশা, বিএনপিএস-এর পরিচালক মাফুজুল বারী ও উপ-পরিচালক শাহনাজ সুমী।

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, দেশের ৫০ শতাংশ জনগোষ্ঠীই নারী; যাদের সিংহভাগই সম্পদহীন, ক্ষমতাহীন এবং উপার্জনের সুযোগবঞ্চিত ও পরনির্ভরশীল। তাই তাদের দিকে ন্যায়সম্পন্ন ও কার্যকরভাবে সম্পদ প্রবাহ বৃদ্ধি করতে হবে। বাজেটে এই বিষয়টিকে গুরুত্ব দিতে হবে।বাজেটে নারীর জন্য বরাদ্দের পরিকল্পনা ও মনিটরিংয়ের সময় সে বরাদ্দ নারী উন্নয়ন নীতির কর্মকৌশল অনুযায়ী হচ্ছে কি না তার একটি খতিয়ান আগামী অর্থবছরের জেন্ডার বাজেটে অন্তর্ভুক্ত করতে হবে।

মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়কে পূর্ণাঙ্গ মন্ত্রণালয় হিসেবে গড়ে তোলার দাবি জানিয়ে বলা হয়, এ মন্ত্রণালয়ের আওতায় উপজেলা পর্যায় পর্যন্ত প্রয়োজনীয় নারীসহায়ক দক্ষ লোকবল নিয়োগ দিতে হবে। পাশাপাশি গৃহীত কর্মপরিকল্পনা বাস্তবায়নের জন্য সংশ্লিষ্ট প্রাতিষ্ঠানগুলোর তার দক্ষতা ও ক্ষমতা বাড়াতে হবে। এছাড়া বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের জেন্ডার ফোকাল পয়েন্টগুলোকে কার্যকর করতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

%d bloggers like this: