আরও ৯ মৃত্যু, আক্রান্ত ৩ হাজার ছাড়াল করোনায়

56

বাংলাদেশে আরও নয়জন প্রাণ হারিয়েছেন প্রাণসংহারি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে। এছাড়া নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৪৩৪ জন। এ নিয়ে করোনায় আক্রান্ত হয়ে বাংলাদেশে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়ালো ১১০ জনে। আর আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হলো ৩৩৮২ জন।

মঙ্গলবার দুপুরে রাজধানী মহাখালীর ইনফরমেশন ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম (এমআইএস) বিভাগের মিলনায়তনে করোনাভাইরাস সংক্রান্ত অনলাইন স্বাস্থ্য বুলেটিনে এসব তথ্য জানান স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা।

অধ্যাপক নাসিমা বলেন, ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া নয়জনের মধ্যে পুরুষ পাঁচজন। আর নারী চারজন। এদের বয়স বিশ্লেষণের ক্ষেত্রে ৬০ বছরের অধিক বয়সের রয়েছে তিনজন, ৫১ থেকে ৬০ বছর বয়সের মধ্যে তিনজন, ৪১ থেকে ৫০ বয়সের মধ্যে রয়েছেন তিনজন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক আরও বলেন, গত ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনে এসেছেন ৮৯ জন। মোট আইসোলেশনে আছেন ৭৬৫ জন। একই সময়ে হোম কোয়ারেন্টাইনে এসেছেন ৪ হাজার ১৬৮ জন। প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে এসেছেন ১ হাজার ৪২৪ জন। মোট কোয়ারেন্টাইনে এসেছেন ৫ হাজার ৫৯২ জন।

গত বছরের শেষ দিন চীনের উহান শহরে প্রথম করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়। সেখানে ভয়াবহ আকার ধারণ করার পর করোনা সারা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়ে। চীনে করোনা পরিস্থিতি অনেকটা স্বাভাবিক হয়ে আসলেও এখন সেখানকার পরিস্থিতি অনেকটা ভালো। প্রাণসংহারি ভাইরাসটি এখন বিশ্বব্যাপী তাণ্ডব চালাচ্ছে। এর মধ্যে বেশি আক্রান্ত হয়েছে ইউরোপের কয়েকটি দেশ ও যুক্তরাষ্ট্রে।

গত ৮ মার্চ বাংলাদেশে প্রথম তিনজনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়। এরপর কিছুদিন করোনা আক্রান্তের সংখ্যা এক অঙ্কের মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকলেও এখই প্রতিদিনই শত শত মানুষ প্রাণঘাতী ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হচ্ছেন। এছাড়া মৃতের তালিকাতেও যোগ হচ্ছে নতুন নতুন নাম। সর্বশেষ আজ পর্যন্ত ৩৩৮২ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হলো। আর মৃতের সংখ্যা বেড়ে হলো ১১০ জন।