এবার ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা মইনুলের বিরুদ্ধে

29

জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট নেতা মইনুল হোসেনের বিরুদ্ধে এবার ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের ২৫ (২) ও ২৯ ধারায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

বুধবার আওয়ামী লীগের যুব ও ক্রীড়া উপ কমিটির সদস্য সুমনা আক্তার লিলি মামলাটি করেন। বিকালে সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. আস সামশ জগলুল হোসেনের আদালতে এই মামলার শুনানি হওয়ার কথা রয়েছে।

সুমনা আক্তার লিলি ঢাকাটাইমসকে জানান, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের ২৫ (২) ও ২৯ ধারায় ব্যারিস্টার মইনুলের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন তিনি।

গত সোমবার রাত ১০টার দিকে সেনা সমর্থিত তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টাকে ফ্রন্টের আরেক নেতা আ স ম আবদুর রবের বাসা থেকে আটক করা হয়। পরে তকে রংপুরের একটি মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতে নেয়া হলে তার জামিন আবেদন নাকচ করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেয় আদালত।

গত ১৬ অক্টোবর বেসরকারি টেলিভিশন একাত্তরের একটি অনুষ্ঠানে এসে নারী সাংবাদিক মাসুদা ভাট্টিকে এক প্রশ্নের জবাবে ‘আপনাকে আমি চরিত্রহীন হিসেবে দেখতে চাই’মর্মে বক্তব্য দিয়ে সমালোচিত হন।

মইনুল হোসেনের বিরুদ্ধে ২১ অক্টোবর মামলা করেন মাসুদা ভাট্টি। জারি হয় গ্রেপ্তারি পরোয়ানা। একই দিন গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি হয় জামালপুরেও। তবে একই দিন উচ্চ আদালতে পাঁচ মাসের আগাম জামিন পান মইনুল। আর পরদিন এই আদেশের বিরুদ্ধে আপিল করে রাষ্ট্রপক্ষ।

এরই মধ্যে মইনুলের বিরুদ্ধে আরও বেশ কিছু মামলা হয়েছে দেশের বিভিন্ন জেলায়। এর মধ্যে একাধিক মামলায় আছে গ্রেপ্তারি পরোয়ানাও।

গত ১৩ অক্টোবর ড. কামাল হোসেন, বিএনপি, নাগরিক ঐক্য এবং জেএসডিকে নিয়ে গঠিত ঐক্যফ্রন্টে যোগ দেন মইনুল হোসেনও। সেনা সমর্থিত তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আমলে খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতির মামলার অনুমোদন দেন তিনিই।