‘কোরআনের আয়াত জানলে মুক্তি মিলেছে’

4

8_118701

ঢাকা:  কোরআনের আয়াত যারা পড়তে পেরেছেন তাদের ছেড়ে দিয়েছে গুলশান ক্যাফের হামলাকারীরা। ক্যাফে থেকে মুক্তি পাওয়া সাধারণ মানুষ এই তথ্য জানিয়েছেন।

গত রাতে হাসনাত করিম নামের এক লোক তার স্ত্রী শারমিন করিম, ১৩ বছর বয়সী মেয়ে সাফা এবং ৮ বছরের ছেলে রায়ানকে নিয়ে সাফার জন্মদিন উদযাপন করতে হলি আর্টিজান ক্যাফেতে যান।

হঠাৎ বন্দুকধারীরা ক্যাফেতে ঢুকে হামলা চালায়। দেশি-বিদেশি মিলিয়ে বেশ কয়েক জন সাধারণ মানুষ সেখানে ছিলেন।

হাসনাত করিম বলেন, ‘বন্দুকধারীরা বাংলাদেশিদের সঙ্গে বাজে ব্যবহার করেনি। বরং তারা সকল বাংলাদেশিকে রাতের খাবার সরবরাহ করে।’

শনিবার সকাল পৌনে আটটার দিকে উদ্ধার অভিযান শুরু করে যৌথ বাহিনী।

‘বন্দুকধারীরা জিম্মিদের ধর্ম সম্পর্কে নিশ্চিত হতে চাইছিল। যারা কোরআনের আয়াত পড়তে পেরেছে, তাদের ছেড়ে দেয়া হয়েছে। বাকিদের ওপর অত্যাচার চালানো হয়।’ বলেন হাসনাত করিমের বাবা রেজাউল করিম।

দেশের ইতিহাসে অন্যতম ভয়াবহ এই হামলায় এখন পর্যন্ত কতজন নিহত হয়েছে তা নিশ্চিত করে জানা যায়নি। বাংলাদেশ পুলিশের অসমর্থিত কয়েকটি সূত্র দাবি করছে পাঁচজন নিহত হয়েছে। এদিকে আইএসের ওয়েব সাইটে দাবি করা হচ্ছে, কমপক্ষে ২০ জন নিহত হয়েছে।