খুশি যুক্তরাষ্ট্রের মুসলমানরা করোনার মধ্যেই রমজানে মসজিদ খোলা

84

যুক্তরাষ্ট্রে মুসলমানরা নিজেদের আশীর্বাদপুষ্ট মনে করছেন পবিত্র মাস রমজানে মসজিদ উন্মুক্ত রয়েছে বিধায় । গত বছর এই সময়ে, করোনাভাইরাস মহামারির কারণে মসজিদের দরজা বন্ধ ছিল। এখন সারা দেশে সংক্রমণের হার হ্রাস পাচ্ছে, লক্ষ লক্ষ আমেরিকান ভ্যাকসিন গ্রহণ করছেন, মসজিদগুলোও আবার খুলছে।

ভয়েস অফ আমেরিকাকে ভার্জিনিয়ার একটি ইসলামিক সেন্টারের পরিচালক ঈমাম নাঈম বেগ বলেন, ‘মানুষ খুশি যে মসজিদ খোলা। এতে তারা যেমন একে অপরকে দেখতে পাচ্ছেন, তেমনি একসাথে প্রার্থনা করার সুযোগও পাচ্ছেন। এটি এমন এক অনুভূতি যা আপনি ঘরে থেকে অনুভব করতে পারবেন না।’
নর্থ ক্যারোলিনার উইনস্টন সালেম কমিউনিটি মসজিদের ইমাম খালিদ গ্রিগস বলেন, ‘আমি ভাই-বোনদের সাথে মসজিদে ফিরতে পেরে রোমাঞ্চিত। যদি আল্লাহ এখনই আমার প্রাণ নিতে চান তবে আমি নিজেকে সম্পূর্ণ মনে করবো।’

মসজিদটি পুনরায় চালু হওয়ার পর ইমাম আসিফ হিরানী রমজানে অনেক যুবককে দেখে অবাক হয়েছেন যারা এখন তার ভাষায় ‘আরও ধার্মিক হয়েছেন, নামায পড়ছেন’। তিনি বলেন, ‘তারা আমাকে নামায এবং সদকা সম্পর্কে প্রশ্ন করছে।’

উল্লেখ্য, যুক্তরাষ্ট্রের এক শতাংশের বেশি নাগরিক মুসলমান। ২০১৭ সালের এক জরিপ অনুযায়ী দেশটিতে প্রায় ৩৫ লক্ষ মুসলমাম বসবাস করছেন।

প্রায় তিন হাজার মসজিদ রয়েছে যুক্তরাষ্ট্রেঃ নিউ ইয়র্কে ২৫৭টি, ক্যালিফোর্নিয়ায় ২৪৬টি এবং টেক্সাসে ১৬৬টি। অথচ ৫০ বছর আগেও যুক্তরাষ্ট্রে মসজিদের সংখ্যা ছিল মাত্র ১০০টি।