গৃহবধূকে গণধর্ষণ ধামরাইয়ে

27

এক গৃহবধূকে পালাক্রমে গণধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে ঢাকার ধামরাইয়ের চৌহাট ইউনিয়নের সন্ধিতারা গ্রামে । এঘটনায় ভুক্তভোগী নিজে বাদি হয়ে ৫ জনকে আসামি করে ধামরাই থানায় মামলা দায়ের করেছেন।
জানা গেছে, ধামরাইয়ের সন্ধিতারা গ্রামের লেবু বাগানের পাশ দিয়ে সোমবার সন্ধ্যায় হেঁটে যাচ্ছিল ওই গৃহবধূ। এসময় একই গ্রামের বান্ধ মিয়ার ছেলে শামীম হোসেন, তাজুল ইসলামের ছেলে মোশারফ হোসেন, সাইদুল ইসলামের ছেলে রুবেল, হাসান মিয়ার ছেলে সোহেল ও নুরু মিয়ার ছেলে সুমন তার গতিরোধ করে জোর করে লেবু বাগানে টেনে নিয়ে যায়। পরে তার মুখ চেপে ধরে পালাক্রমে ধর্ষণ করে। গৃহবধূ কৌশলে ডাক চিৎকার করলে আশে পাশের লোকজন ছুটে আসে। এসময় ধর্ষকরা পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় মঙ্গলবার রাতে ধামরাই থানায় ভুক্তভোগী নিজে বাদি হয়ে পাঁচজনকে আসামি করে একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেছেন।
বিষয়টি নিশ্চিত করে ধামরাই থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি দীপক চন্দ্র সাহা বলেন, ধর্ষকদের গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে। একই সঙ্গে ধর্ষিতা গৃহবধূর ডাক্তারি পরীক্ষা প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে।