Home / খবর / গ্রেপ্তার স্বামী, বিয়ের ১৯ দিনেই শ্লীলতাহানির অভিযোগ পুনম পান্ডের

গ্রেপ্তার স্বামী, বিয়ের ১৯ দিনেই শ্লীলতাহানির অভিযোগ পুনম পান্ডের

বিয়ের পর স্বামীর সঙ্গে সাতজন্ম কাটাতে চেয়ে পোস্টও করেছিলেন পুনম পান্ডে। পহেলা সেপ্টেম্বর সাতপাকে বাঁধা পড়েছিলেন দুজনে। তবে সে আশা বুঝি শেষ হয়েছে।

​বিয়ের পর মাত্র কয়েকদিনের মাথায় ভেঙে গেল সম্পর্ক! স্বামী শ্যাম বম্বের বিরুদ্ধে শ্লীলতাহানির অভিযোগ করে পুলিশের দ্বারস্থ হলেন ভারতের আলোচিত অভিনেত্রী পুনম পান্ডে। পুলিশের কাছে অভিযোগ দায়েরের পরপরই গ্রেপ্তার করা হয়েছে শ্যাম বম্বেকে। খবর জি নিউজের।

সূত্রের খবর, গোয়ায় সম্প্রতি শ্যুটিং শুরু করেন পুনম পান্ডে। বিয়ের পরপরই স্বামী শ্যাম বম্বের সঙ্গে গোয়ায় হাজির হন তিনি। এরপরই পুনম অভিযোগ করেন, শ্যাম নাকি তার শ্লীলতাহানি করেছেন।

পুনম পান্ডের অভিযোগ দায়েরের পরপরই তার স্বামীকে গ্রেফতার করা হয়। কঙ্কনা থানার ইন্সপেক্টর তুকারাম চহ্বান জানান, পুনম পান্ডের অভিযোগ দায়েরের পরই শ্যাম বম্বেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তবে পুনম পান্ডে বা শ্যাম বম্বে এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করেননি।

গত ২ বছর ধরে লিভ ইন সম্পর্কে ছিলেন পুনম পান্ডে এবং শ্যাম বম্বে। লকডাউনের মধ্যে বাগদান পর্বের পর সম্প্রতি বিয়ে সেরে ফেলেন পুনম, শ্যাম। ব্যান্দ্রার বাড়িতে পরিবার এবং কাছের মানুষদের উপস্থিতিতে বিয়ে সারেন তারা। সামাজিক মাধ্যমে সেই ছবিও শেয়ার করেন ওই দম্পতি। শুধু তাই নয়, শ্যামের সঙ্গে সাতপাকে বাঁধা পড়ে তার সঙ্গে আগামী সাতজন্ম একসঙ্গে কাটাতে চান বলেও জানান পুনম পান্ডে।

যদিও এসব কিছুর পর আচমকাই কেন শ্যাম বম্বের বিরুদ্ধে সোজায় থানায় গিয়ে হাজির হন পুনম, তা নিয়ে গুঞ্জন শুরু হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

%d bloggers like this: