র‌্যাব জনকে গ্রেপ্তার করেছে ৭০ কোটি টাকার সাপের বিষসহ নারায়ণগঞ্জে

7

র‌্যাব-১০ নারায়ণগঞ্জে  প্রায় ৭০ কোটি টাকার সাপের বিষসহ ২ জনকে গ্রেপ্তার করেছে। গ্রেপ্তারকৃতরা হলো- নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার ফতুল্লার ইসদাইর এলাকার মৃত নুরুল ইসলামের ছেলে মোস্তফা কামাল (৫৫) ও চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গার প্রাকপুর গ্রামের গোলাম কিবরিয়ার ছেলে মিজানুর রহমান (৪৩)। এ সময় অভিযানের বিষয় টের পেয়ে দুইজন পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় রোববার রাতে র‌্যাব-১০’র নায়েব সুবেদার শেখ মনিরুজ্জামান বাদী হয়ে ৪ জনকে আসামি করে ফতুল্লা মডেল থানায় মামলা দায়ের করেন। এর আগে রোববার বিকালে ফতুল্লার ইসদাইর এলাকা থেকে তাদের আটক ও বিষগুলো উদ্ধার করা হয়।
গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব-১০ এর একটি টিম ইসদাইর এলাকায় অভিযান চালিয়ে একটি কার্টনের মধ্যে যকাঁচের জারে সংরক্ষিত (২টিতে তরল ও ৪টিতে পাউডার জাতীয়) দুই কেজি ৯০ গ্রাম বিষ উদ্ধার করে। যার আনুমানিক বাজার মূল্য ৭০ কোটি টাকা বলে জানিয়েছে র‌্যাব।
মামলার বরাত দিয়ে ফতুল্লা মডেল থানার ওসি আসলাম হোসেন জানান, রাজধানীর লালবাগ ক্যাম্পের সিপিসি র‌্যাব-১০ এর একটি দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ফতুল্লার ইসদাইর এলাকায় অভিযান চালিয়ে মোস্তফা কামালের বাড়ি থেকে মোস্তফা কামাল ও মিজানুর রহমান মধু নামে দুজনকে গ্রেপ্তার করে। এসময় আবুল বাশার ও আসফাকুর রহমান ভুট্টু নামে আরো দুজন ওই বাড়ি থেকে কৌশলে পালিয়ে যায়।

তখন ওই বাড়িতে অভিযান চালিয়ে দুজনের কাছ থেকে একটি কার্টন উদ্ধার করে। ওই কার্টনের ভেতর থেকে ২টি কাঁচের জারে তরল ও ৪টি কাঁচের জারে পাউডার জাতীয় সাপের বিষ উদ্ধার করেন। এসবের আনুমানিক মূল্য প্রায় ৭০ কোটি টাকা হবে। এ ছাড়া গ্রেপ্তারকৃতদের কাছ থেকে প্রায় ৭ হাজার টাকা ও তাদের ব্যবহৃত মোবাইল জব্দ করা হয়েছে।

ওসি আরো জানান, র‌্যাব প্রাথমিক অনুসন্ধানে জানতে পেরেছেন গ্রেপ্তারকৃতরা আন্তর্জাতিক চোরাকারবারি দলের সক্রিয় সদস্য। তারা বিদেশ থেকে অবৈধ ভাবে সাপের বিষ এনে বিক্রয় করে। তাদের মধ্যে মিজানুর রহমান মধুর বিরুদ্ধে একাধিক মামলা রয়েছে।