ঘাটতি পূরণের চেষ্টা হচ্ছে দুই শিক্ষাবর্ষের

31

করোনা সংক্রমণ কমে যাওয়ায় এখন থেকে নিয়মিত ক্লাস-পরীক্ষাসহ অন্যান্য শিক্ষা কার্যক্রম আগের মতো চলবে শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি বলেছেন। আশা করছি, এ শিক্ষাবর্ষ এবং আগামী শিক্ষাবর্ষ মিলিয়ে যেখানে যত ঘাটতি আছে, সব পূরণ করা সম্ভব হবে। গতকাল বুধবার ঢাকা কলেজে শহীদ আ ন ম নজিব উদ্দিন খান

খুররম অডিটরিয়ামে একাদশ শ্রেণির ওরিয়েন্টেশন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

ওরিয়েন্টেশনে ঢাকা কলেজ অধ্যক্ষ অধ্যাপক আইকে সেলিম উল্লাহ খোন্দকারের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক নেহাল আহমেদ, ঢাকা কলেজের উপাধ্যক্ষ অধ্যাপক এটিএম মইনুল হোসেন, ঢাকা কলেজ শিক্ষক পরিষদের সম্পাদক মো. আব্দুল কুদ্দু স সিকদার, ঢাকা কলেজের নিবিড় পর্যবেক্ষণ উপকমিটির আহ্বায়ক অধ্যাপক পুরঞ্জয় বিশ্বাস প্রমুখ।

গতকাল জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ডে (এনসিটিবি) একাদশ-দ্বাদশ শ্রেণির পাঠ্যপুস্তক বিতরণ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন শিক্ষামন্ত্রী। অনুষ্ঠানে এক প্রশ্নের জবাবে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) অধিভুক্ত রাজধানীর সরকারি সাত কলেজের শিক্ষার্থীদের আলাদা বিশ্ববিদ্যালয় চাওয়ার দাবি যৌক্তিক নয়। যখন থেকে তারা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত হয়, তখন থেকেই তাদের মানের ভিন্নতা আসে, তাদের পরীক্ষাসহ সব কার্যক্রম ভিন্ন মানে করতে হচ্ছে। ধীরে ধীরে তারা এসব সমস্যা কাটিয়ে উঠছে।

পাঠ্যপুস্তক বিতরণ কার্যক্রমের উদ্বোধনের সময় এনসিটিবি চেয়ারম্যান অধ্যাপক ফরহাদুল ইসলামসহ অন্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।