Home / আর্ন্তজাতিক / থাই ফরেনসিক কর্মী মৃতদেহ থেকে করোনায় আক্রান্ত !

থাই ফরেনসিক কর্মী মৃতদেহ থেকে করোনায় আক্রান্ত !

বিজ্ঞানীরা সম্প্রতি থাইল্যান্ডের এক ফরেনসিক কর্মী করোনায় আক্রান্ত হওয়ার পর নড়েচড়ে বসেছেন । করোনায় মৃতদের সৎকারেও সতর্ক হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন তারা। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ও অন্যান্য গবেষকরা এতদিন জানিয়েছেন যে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত ব্যাক্তিদের দেহ থেকে এই ভাইরাস সংক্রামিত হয় না।

করোনা আক্রান্ত একটি মৃতদেহের সংস্পর্শে আসায় তার দেহে ভাইরাসের সংক্রামিত হয়েছে বলে দাবি করা হয়েছে। করোনাভাইরাস মৃতদেহে কতক্ষণ বেঁচে থাকতে পারে তা নিয়ে নতুন করে গবেষণা শুরু করেছেন বিজ্ঞানীরা। খবর এবিসি নিউজের।

সাধারণত করোনায় আক্রান্তদের চিকিৎসা দিতে গিয়ে স্বাস্থ্যকর্মীদের আক্রান্তের ঘটনা প্রতিনিয়ত ঘটছে। দেশে বিদেশে এর উদাহরণ অনেক। তবে এতদিন মৃতদেহ থেকে করোনা ছড়ায় বলে বিজ্ঞানীরা যা জানিয়েছিলেন থাইল্যান্ডের ওই দাবির পর বিষয়টি প্রশ্নের মুখে পড়েছে।

এবিসি নিউজ জানিয়েছে, স্বাস্থ্যকর্মী ও পুলিশদের যেমন করোনা আক্রান্তদের সংস্পর্শে আসতে হয়। এটা স্বাভাবিক। কিন্তু ফরেনসিক প্যাথলজিস্টদের করোনায় আক্রান্তদের সংস্পর্শে আসার সম্ভাবনা অনেক কম।

থাইল্যান্ডের ওই দাবির পর বিশেষজ্ঞরা পরামর্শ দিয়েছেন যে, এবার থেকে শুধুমাত্র স্বাস্থ্যকর্মীরাই নন, যারা করোনা আক্রান্তদের শেষকৃত্যের কাজ করবেন, তাদেরও প্রয়োজনীয় সবরকম সাবধানতা অবলম্বন করতে হবে। এছাড়া বাড়িতে বা হাসপাতালের বাইরে করোনায় মারা যাওয়া ব্যক্তিদের সংস্পর্শে যেন পরিবারের সদস্যরা বা সাধারণ মানুষ না আসে।

ন্যাশনাল অ্যাসোসিয়েশন অফ মেডিকেল এক্সামিনারসরা নথিভুক্ত করেছেন যে, মৃতদেহ থেকে কোভিড-১৯ এর সংক্রমণ হওয়ার সম্ভাবনা অনেক কম। তবে এটি অসম্ভব নয়। যেহেতু ফরেনসিক কর্মীরা নিয়মিত মৃতদেহ ও জৈবিক তরলের সংস্পর্শে আসেন, সেহেতু তাদের আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি রয়েছে।

ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্য অনুযায়ী, থাইল্যান্ডে এখন পর্যন্ত ২৭৩৩ জন আক্রান্ত হয়েছেন এবং মৃত্যু হয়েছে ৪৭ জনের।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

%d bloggers like this: