দলের মালিকানায় বিসিবি বিপিএলে কেন ঢাকা ?

60

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) অষ্টম আসর ছয়টি দল নিয়ে মাঠে গড়াতে যাচ্ছে । আগের আসরগুলোতে দেশের নামকরা বড় বড় প্রতিষ্ঠানগুলো আগ্রহ দেখালেও এই আসরে অংশ নিচ্ছে না তারা। যদিও ছয় দলের জন্য দেশের অধিক প্রতিষ্ঠান আগ্রহ দেখানোর পর ছয়টি প্রতিষ্ঠানকে নিশ্চিত করে বোর্ড। কিন্তু নির্ধারিত সময়ে টাকা জমা না দেওয়াতে দল পায়নি একটি প্রতিষ্ঠান, যারা এই আসরের ঢাকা দলের মালিকানায় থাকার কথা ছিল।

বিপিএলের প্লেয়ার্স ড্রাফটের আগের দিনেও ঢাকা দলের মালিকানা নিশ্চিত করতে না পেরে আপাতত দলটিকে নিজেদের কাছে রেখে দেয় বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। তবে টুর্নামেন্ট শুরুর আগে আগ্রহী মালিকানা প্রতিষ্ঠান কিংবা স্পন্সর প্রতিষ্ঠানের কাছে দলটি বুঝিয়ে দিতে চায় বিসিবি।

আসন্ন এই আসরে দল গঠনে বেশ চমক দেখালো বিসিবির নিয়ন্ত্রণে থাকা ঢাকা। দলটি এবারের আসরে বাংলাদেশ দলের টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম ইকবাল ও সাবেক অধিনায়ক মাশরাফী বিন মোর্ত্তুজাকে দলে ভিড়িয়েছে। একই সঙ্গে দলের ভারসাম্য ধরে রাখতে আরো বেশ কয়েকজন ক্রিকেটারকে দলে নেয় তারা।

ভবিষ্যতে ঢাকা দলের মালিকানার বিষয়টি কী হতে পারে এমন প্রশ্নের জবাবে বিসিবির পরিচালক ও বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের সদস্য সচিব ইসমাইল হায়দার মল্লিক বলেন, ‘যখন আমরা বিপিএলের টেন্ডারে যাই তখন প্রায় ১০-১২টি দল আমাদের কাছে আগ্রহ প্রকাশ করে। পুরো প্রক্রিয়া শেষ করে আমরা আটজন মালিককে নির্বাচন করি যে তারা মালিক হিসেবে থাকতে পারবে। তার থেকে আমরা শর্ট লিস্ট করে ছয়টা দিই। পাঁচজন নির্ধারিত সময়ে টাকা জমা দিয়েছে, একজন ডেড লাইনের মধ্যে টাকা জমা দিতে পারেনি। তাই উনি পাননি, আর গতকাল রাতে আরেকজন, যিনি আগে নিতে চেয়েছিল। আমরা চিন্তা করেছি বোর্ড আগে দলটা তৈরি করে ফেলুক। তৈরি করার পর আমরা হয় স্পন্সরশিপ না হয় মালিকানা ব্যানারে হোক এটা আমরা দিয়ে দেব।’

ঢাকার মালিকানা যে প্রতিষ্ঠানটির পাওয়ার কথা ছিল, তাদের না দেওয়ার মূল কারণ আর্থিক সমস্যা এড়ানো। বিসিবির এই কর্মকর্তা বলেন, ‘এখানকার ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলো যে সব নিয়ম-কানুন মানতে চায় তা কিন্তু না। আপনি যদি দেখেন আমাদের আগের বিপিএলের সঙ্গে মেলাতে গেলে যেটা বড় পরিসরে হতো, অন্তত আর্থিক দিক আমলে নিলে এবার কিন্তু ছোট পরিসরেই হচ্ছে। তার মধ্যে আমাদের যে আর্থিক নিয়ম কানুনগুলো ছিল বা অন্য যেগুলো ছিল সেগুলো কিন্তু আমরা কঠোরভাবে অনুসরণ করতে চাই। সুতরাং এটা যে পাচ্ছি না তা নয়, আমাদের হাতে মালিকানা ও স্পন্সর পেতে চায় এমন নাম আছে কিন্তু আমরা দিইনি।’

তিনি আরও বলেন, ‘মালিকানা না দিলেও আপনি যদি দেখেন তামিম, রিয়াদ, মাশরাফী, নাইম শেখের মতো জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের নিয়ে গড়া ঢাকা দল কিন্তু সেরাদের একটা। অবশ্যই গতকাল রাতে আমাদের সভাপতি (নাজমুল হাসান পাপন) দিক নির্দেশনা দিয়ে দিয়েছেন, এটা হয়তো স্পন্সরশিপ বা মালিকানায় দিয়ে দেব।’