নাতনির ফেলে দেওয়া সন্তানের বাবা তারই নানা!

40

এক স্কুলছাত্রীর সন্তান প্রসবের পর দূর সম্পর্কের নানা নিজামের (৬৫) বাড়ির পাশে ফেলে রাখা হয় কুষ্টিয়ায় । এ ঘটনা জানাজানি হলে ভুক্তভোগীর বাবা বাদী হয়ে মামলা করেন। সেই মামলায় গতকাল রোববার রাতে অভিযুক্ত নিজামকে ইবি থানার মনোহরদিয়া ইউনিয়নের কন্দর্পদিয়া গ্রাম থেকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব-১২।

আজ সোমবার দুপুর ১২টার দিকে প্রেস ব্রিফিং করেন র‌্যাব-১২ কুষ্টিয়া ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার মোহাম্মদ ইলিয়াস খান।

তিনি জানান, নানার ধর্ষণে এক স্কুলছাত্রী (১৩) সন্তানের জন্ম দেয়। বিষয়টি জানাজানি হলে পরিবারের পক্ষ থেকে ধামাপাচা দিতে পারিবারিকভাবে বৈঠক হয়। কিন্তু নবজাতককে জীবিত ফেলে দেওয়ায় আবারও লোকমুখে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়। এ ঘটনায় শিশুটি বাবা-মা কে, কেন তাকে ফেলে গেল—এ ঘটনায় অনুসন্ধান করে র‌্যাব-১২।

উল্লেখ্য, কুষ্টিয়ার সদর থানার দহকুলা এলাকায় ১৩ বছরের এক স্কুলছাত্রীকে তার দূর সম্পর্কের নানা ২০২২ সালের জানুয়ারিতে নিজ বাড়িতে ধর্ষণ করে বলে অভিযোগ ওঠে। এতে স্কুলছাত্রী অন্তঃসত্ত্বা হয় এবং গত ৪ অক্টোবর মেয়ে সন্তান প্রসব করে। এরপর নবজাতককে নিজামের বাড়ির পাশে একটি পরিত্যক্ত পুকুর পাড়ে ফেলে রেখে যায়। পরে ওই শিশুকে গ্রামের লোকজন উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে। পরে নবজাতকের মায়ের পরিচয় এলাকায় জানাজানি হয়। এ ঘটনায় ভুক্তভোগীর বাবা বাদী হয়ে কুষ্টিয়া মডেল থানায় একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন।