নিয়োগ দিতে সুপারিশ আইজিপির স্ত্রী পরিচয়ে এসপিকে ফোন

10

এক নারী প্রতারককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ বাংলাদেশ পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. বেনজীর আহমেদের স্ত্রীর ভুয়া পরিচয় দিয়ে কনস্টেবল নিয়োগে প্রতারণার অভিযোগে । তার নাম রুমা আক্তার (৩২)।

আজ শনিবার বিকেলে পুলিশ হেডকোয়ার্টারের এআইজি (মিডিয়া অ্যান্ড পিআর) মো. কামরুজ্জামান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, ওই নারী আইজিপির স্ত্রীর মিথ্যা পরিচয় দিয়ে ৭ নভেম্বর দুপুর পৌনে ১২টায় ০১৭৮৮৬১৭৭৭১ নম্বর মোবাইল ফোন থেকে টাঙ্গাইল জেলার পুলিশ সুপারের ব্যক্তিগত মোবাইল নম্বরে কল করে একজন প্রার্থীকে কনস্টেবল পদে নিয়োগ দিতে বলেন। এ সময় তিনি এসএমএস করে প্রার্থীর তথ্যাদিও পাঠান পুলিশ সুপারের কাছে।

তিনি আরও জানান,এই বিষয়টি প্রতারণা প্রমাণিত হওয়ায় পুলিশ হেডকোয়ার্টার্সের এলআইসি শাখা গোয়েন্দা ও  প্রযুক্তিগত তথ্যাদি বিশ্লেষণ করে ঢাকা জেলার কেরানীগঞ্জ থানার আটিবাজার ঘাটারচর এলাকায় ওই নারী প্রতারকের অবস্থান শনাক্ত করে। পরে পুলিশ গত ১১ নভেম্বর রাত ৯টার দিকে ওই এলাকায় অভিযান চালিয়ে রুমা আক্তারকে গ্রেপ্তার করে। তার বিরুদ্ধে টাঙ্গাইল সদর থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা হয়েছে। তাকে রিমান্ডে নেওয়া হয়েছে।টাঙ্গাইলের পুলিশ সুপার সরকার মোহাম্মদ কায়সার জানান, আইজিপির স্ত্রী পরিচয় দিয়ে পুলিশ কনস্টেবল নিয়োগের জন্য তদবির করায় সন্দেহ হয়। পরে খোঁজ নিয়ে জানা যায় পরিচয়দানকারী ওই নারী একজন প্রতারক।

পুলিশ জানিয়েছে, রুমা আক্তারের বাড়ি বাগেরহাট জেলার চিতলমারী থানার রহমতপুর গ্রামে। বর্তমানে সে ঢাকা জেলার সাভার থানার লুটেরচর গ্রামে স্বামীর সঙ্গে বসবাস করেন।

এদিকে, এ ঘটনায় আইজিপির স্ত্রী ও বাংলাদেশ পুলিশ নারী কল্যাণ সমিতির (পুনাক) সভানেত্রী জীশান মীর্জা কনস্টেবল নিয়োগে কোনো ধরনের প্রতারণার কৌশল না নেওয়া এবং প্রতারক থেকে সতর্ক থাকার জন্য সবার প্রতি বিশেষ অনুরোধ জানান।