ব্রেকিং নিউজ
Home / আর্ন্তজাতিক / বাংলাদেশকে মালদ্বীপের ‘ধন্যবাদ’খাদ্য সহায়তা পেয়ে

বাংলাদেশকে মালদ্বীপের ‘ধন্যবাদ’খাদ্য সহায়তা পেয়ে

বাংলাদেশের পাঠানো খাদ্য সহায়তা হিসেবে ১০০ টনের অধিক খাদ্য, ওষুধ এবং চিকিৎসা সরঞ্জাম পেয়ে মালদ্বীপের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্দুল্লা শহীদ দেশটির পক্ষ থেকে বাংলাদেশের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন করোনাভাইরাসের ফলে সৃষ্ট পরিস্থিতিতে।

বুধবার খাদ্য সামগ্রী নৌবাহিনী থেকে গ্রহণ করার সময় মালদ্বীপের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্দুল্লা শহীদ এই কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

মালদ্বীপের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্দুল্লা শহীদ বলেন, ‘বাংলাদেশের নেভি জাহাজ তথা ‘সমুদ্র অভিযান’কে মালদ্বীপে স্বাগতম। আমাদের অনুরোধে মালদ্বীপের এই কঠিন সময়ে আমাদের পাশে দাঁড়ানোর জন্য বাংলাদেশ সরকারকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি। আমাদের কথায় দ্রুত সময়ে সাড়া দেওয়ার জন্য মালদ্বীপের মানুষ আন্তরিকভাবে কৃতজ্ঞ। এই সাহায্য বা উদারতার জন্য আপনাদের মন থেকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি।’

গত ১৫ এপ্রিল মালদ্বীপ সরকারের অনুরোধে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশটির জন্য খাদ্য সহায়তা হিসেবে ১০০ টনের অধিক খাদ্য, ওষুধ এবং চিকিৎসা সরঞ্জাম পাঠায়।

সরকারের এসব সহায়তা দ্বীপ রাষ্ট্রটিতে পৌঁছে দেয় বাংলাদেশ নৌবাহিনীর একটি জাহাজ। আজই সকালেই জাহাজটি মালদ্বীপের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে বলে এক বার্তায় জানায় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

এদিকে আজ সকাল ১১টায় বাংলাদেশের খাদ্য সামগ্রী পেয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে টেলিফোনে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম মুহাম্মদ সলিহ।

ভারত মহাসাগরের দ্বীপরাষ্ট্র মালদ্বীপের জনসংখ্যা চার লাখের কিছু বেশি। দেশটিতে বিদেশি অভিবাসীর সংখ্যাই প্রায় দুই লাখের মতো। এর মধ্যে সেখানে ৭০ থেকে ৮০ হাজার বাংলাদেশি রয়েছেন। যাদের একটি অংশের বৈধ কাগজপত্র নেই।

করোনাভাইরাসের ফরে সৃষ্ট পরিস্থিতিতে সম্প্রতি কয়েকটি দেশ প্রবাসী বাংলাদেশিদের ফেরত আনতে চাপ দেয়। এর মধ্যে মালদ্বীপও রয়েছে। দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আবদুল মোমনকে তার দেশে বসবাস করা বৈধ কাগজপত্র না থাকাদের দেশে ফেরানোর কথা বলেছেন।

কূটনৈতিক সূত্রগুলো বলছে, বৈশ্বিক করোনাভাইরাসে টালমাটাল পরিস্থিতিতে মালদ্বীপ প্রায় দুই লাখের মতো অভিবাসীর খাবার জুটাতে হিমশিম খাচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় দেশটিতে ত্রাণ পাঠিয়েছে বাংলাদেশ। মূলত সেখানে অবস্থানকারী বাংলাদেশি কর্মীরা ছাড়াও সরকারের পাঠানো এই ত্রাণ দেশটিও প্রয়োজনে ব্যবহার করতে পারবে বলে জানা গেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

%d bloggers like this: