Home / আর্ন্তজাতিক / বাইডেন বিজয়ী- পেনসিলভ্যানিয়ার রিপাবলিকান সিনেটর বললেন

বাইডেন বিজয়ী- পেনসিলভ্যানিয়ার রিপাবলিকান সিনেটর বললেন

সিনেটর প্যাট টুমি নিজের দল রিপাবলিকানের । তিনি স্বীকার করে নিয়েছেন তার রাজ্য পেনসিলভ্যানিয়াসহ নির্বাচনে বিজয়ী হয়েছেন ডেমোক্রেট প্রার্থী জো বাইডেন। যুক্তরাষ্ট্রের ৪৬তম প্রেসিডেন্ট হচ্ছেন জো বাইডেনই। শুধু তিনি একাই নন রিপাবলিকান দল থেকে নির্বাচিত সাবেক প্রেসিডেন্ট জর্জ ডব্লিউ বুশ, প্রেসিডেন্ট পদে সাবেক প্রার্থী মিট রমনি সহ অনেক রিপাবলিকান প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্পকে পরাজয় স্বীকারের আহ্বান জানিয়েছেন। কিন্তু কিছুতেই কিছু মানবেন না ট্রাম্প। তার ভাষা যেন এমন যে যত যা-ই বলুক হোয়াইট হাউজটা আমারই। তিনি কয়েকটি রাজ্যে নির্বাচনের ফল চ্যালেঞ্জ করে মামলা করেছিলেন। কিন্তু একে একে তার সবটাতে তিনি হেরে যাচ্ছেন।

মিশিগান, জর্জিয়ায় হেরে গেছেন। সবশেষ পেনসিলভ্যানিয়াতে তার ভোট জালিয়াতির মামলা খারিজ করে দিয়েছেন বিচারক। এর ফলে ওই রাজ্য আনুষ্ঠানিকভাবে প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত জো বাইডেনকে বিজয়ী ঘোষণা করবে। এই ঘোষণা সোমবার দেয়া হতে পারে। পেনসিলভ্যানিয়ার কোর্টের ওই রায়ের পর রিপাবলিকান সিনেটর প্যাট টুমি বলেছেন, বাইডেনই ২০২০ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে বিজয়ী। নির্বাচনের ফল এখন মেনে নেয়া উচিত প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের। একই সঙ্গে ক্ষমতা হস্তান্তর প্রক্রিয়া শুরু করা উচিত। ওদিকে ক্রমশ ঘড়ির কাঁটা টিক টিক করে এগিয়ে যাচ্ছে। ২০ শে জানুয়ারি আস্তে আস্তে এগিয়ে আসছে। তার আগে ব্যাটলগ্রাউন্ড বলে পরিচিত রাজ্যগুলোর ভোটের ফলের সার্টিফাইড ফল প্রকাশ বন্ধ রাখার জন্য মরিয়া হয়ে উঠেছেন ট্রাম্প। একই সঙ্গে আইনি লড়াইয়ে তিনি নির্বাচনের ফলকে উল্টে দিয়ে হোয়াইট হাউজকে নিজের কব্জায় রাখার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। কিন্তু তার সবটাতে তিনি পরাস্ত হচ্ছেন।
এরই মধ্যে পেনসিলভ্যানিয়ার বিচারক ম্যাথিউ ব্রান তার রায়ে লিখেছেন, যথার্থতা ছাড়াই এবং আন্দাজ নির্ভর অভিযোগের ভিত্তিতে আইনি চ্যালেঞ্জ করেছে ট্রাম্প টিম। তিনি আরো বলেন, যুক্তরাষ্ট্রে একটিমাত্র ভোটারকে বঞ্চিত করা যায় না। সেখানে ষষ্ঠ জনবহুল রাজ্যে সব ভোটারকে বঞ্চিত করার (অর্থাৎ তাদের ভোট অন্যকে দেয়া) কথাই তো আসতে পারে না। আমাদের জনগণ, আইন এবং প্রতিষ্ঠানগুলো আরো অনেক কিছু দাবি করে।
উল্লেখ্য, এখন পর্যন্ত ফলে ৩০৬টি ইলেকটোরাল কলেজ ভোট পেয়ে প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হয়েছেন জো বাইডেন। আর ২৩২ ভোট পেয়ে পিছিয়ে আছেন ট্রাম্প। এই ইলেকটোরাল কলেজ ভোটগুলো আগামী ১৪ই ডিসেম্বর আনুষ্ঠানিকভাবে তাদের ভোট দিয়ে প্রেসিডেন্টের জয় নিশ্চিত করবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

%d bloggers like this: