Home / অর্থ-বাণিজ্য / বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সক্ষমতা দুর্বল হবে যুক্তরাষ্ট্রের সাহায্য বন্ধে- চীন

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সক্ষমতা দুর্বল হবে যুক্তরাষ্ট্রের সাহায্য বন্ধে- চীন

যুক্তরাষ্ট্র করোনা ভাইরাস সংকটের সময় বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থায় (WHO) অর্থ সাহায্য বন্ধ করে দিয়েছে । সেজন্য চীন ‘গভীরভাবে চিন্তিত’ বলে প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছে।

মঙ্গলবার মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প অভিযোগ করেন, চীনে প্রথম করোনার খোঁজ পাওয়ার পর তার সংক্রমণ রুখতে ব্যর্থ হয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। সেজন্য মার্কিন অর্থ সাহায্য বন্ধ করা হচ্ছে।

গত সপ্তাহেই অবশ্য এরকম ইঙ্গিত দিয়েছিলেন ট্রাম্প। মঙ্গলবার তা সরকারিভাবে ঘোষণা করে মার্কিন প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘নিজের প্রাথমিক দায়িত্ব পালনে ব্যর্থ হয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। সেজন্য ওদের জবাবদিহি করতে হবে।’

তিনি জানান, ভবিষ্যতে আবারও আর্থিক সাহায্য করা হবে কিনা, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পদক্ষেপ খতিয়ে দেখে সেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।
তিনি সংস্থাটির বিরুদ্ধে চীনের পক্ষপাতিত্ব করারও অভিযোগ করেন।

বিষয়টি নিয়ে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা অবশ্য কোন প্রতিক্রিয়া জানায় নি। যদিও চীন বুধবার জানায়, এ বিষয়ে তারা গভীরভাবে চিন্তিত। একটি সাংবাদ সম্মেলনে চীনের বিদেশ মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র ঝাও লিজান বলেন, ‘আমেরিকা কর্তৃক বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থায় আর্থিক সাহায্য স্থগিত করার বিষয়ে আমরা গভীরভাবে চিন্তিত। বর্তমানে বিশ্বে করোনা মহামারীর অবস্থা অত্যন্ত ভয়াবহ।

এটা সংকটজনক পরিস্থিতি। মার্কিন এই সিদ্ধান্তের ফলে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সক্ষমতা দুর্বল হবে এবং মহামারীটির বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক সহযোগিতাও হ্রাস পাবে।’

উল্লেখ্য, ২০১৯ সালে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাকে ৪০০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার অর্থ সাহায্য করেছিল যুক্তরাষ্ট্র। যা বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মোট বাজেটের ১৫ শতাংশ। ফলে মার্কিন সাহায্য বন্ধ যে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার জন্য বিশাল এক ধাক্কা, তা বলাবাহুল্য।

– স্ট্রেইট টাইমস অবলম্বনে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

%d bloggers like this: