মন্ত্রীর ‘বান্ধবী’ আটক

17

এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি) ভারতের পশ্চিমবঙ্গের শিল্পমন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে আজ শনিবার সকালে গ্রেপ্তার করেছে । তাকে দুই দিনের ইডি হেফাজতে দিয়েছে আদালত। অন্যদিকে, আজ সন্ধ্যায় তার ঘনিষ্ঠ হিসেবে পরিচিত অর্পিতা মুখোপাধ্যায়কে আটক করেছে ইডি। গতকাল শুক্রবার অর্পিতার বাসা থেকে ২১ কোটি টাকা ছাড়াও বিপুল সম্পদ জব্দ করে ইডি।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজারের খবরে বলা হয়, বাড়ি থেকে অর্পিতাকে নিয়ে যাওয়ার সময় তিনি বলেন, ‘আমি কোনও অন্যায় করিনি। বিজেপির চাল। আমাকে ফাঁসানো হয়েছে।’

বাড়ি থেকে অর্পিতা মুখোপাধ্যায়কে জোকা ইএসআই হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। সেখানে তার স্বাস্থ্য পরীক্ষা হবে।

এর আগে অর্পিতার ফ্ল্যাটে পাওয়া বিপুল টাকার উৎস নিয়ে তাকে ক্রমাগত জিজ্ঞাসাবাদ করেন ইডি কর্তারা। এই নিয়ে তিনি বিস্ফোরক দাবি করেছেন। ইডি সূত্রে জানা গিয়েছে, অর্পিতা নাকি জানিয়েছেন যে এসএসসির চাকরিপ্রার্থীদের কাছ থেকে টাকা নিত দালালরা। দালালদের কাছ থেকে সরকারি কর্মচারী, কর্মকর্তা হয়ে সে টাকা যেত নেতা-মন্ত্রীদের কাছে।

ইডি কর্তারা অর্পিতার থেকে জানতে চান যে তার সঙ্গে পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের কী সম্পর্ক? জবাবে অর্পিতা নাকি শুধু বলেছেন, ‘সাত বছর আগে এক ডেভেলপারের মাধ্যমে পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে দেখা হয়। সেই ডেভেলপার পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের ঘনিষ্ঠ ছিলেন। এরপর ক্রমেই তার সঙ্গে পারিবারিক সম্পর্ক তৈরি হয়েছে।

এদিকে, অর্পিতার মায়ের বক্তব্য, ‘আমার মেয়ে মডেলিং করেন। ওড়িশায় কয়েকটি সিনেমাতে অভিনয় করেছে সে।’

অন্যদিকে, এরই মধ্যে পশ্চিমবঙ্গজুড়ে পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে অর্পিতার সম্পর্ক নিয়ে জল্পনা শুরু হয়েছে।