‘মহানগর’ দুই বাংলায় ঝড় তুলেছে

23

সুন্দর কাহিনী, সংলাপ, গঠনমূলক নির্মাণ, ভালো অভিনেতা-অভিনেত্রীর চৌকস অভিনয়, সেট, লাইট, সাউন্ড-সব মিলেই তৈরী হতে পারে সুন্দর একটি ওয়েব সিরিজ। ওয়েব সিরিজ মানেই নগ্নতা না। একেকটি পর্ব যেন অন্য রকম আকর্ষণ। যা সব দর্শকের চাওয়া। যা দর্শক পেলেন ‘মহানগর’ ওয়েব সিরিজে। রাজধানী ঢাকায় এক রাতে সাত ঘণ্টায় ঘটে যাওয়া কিছু অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা। যেখানে গল্পের চরিত্রগুলো মানুষের জীবনের গহিন অন্ধকার দিকগুলো তুলে ধরেছেন পরিচালক। এর কাহিনি ও চিত্রনাট্য লেখার পাশাপাশি পরিচালনা করেছেন আশফাক নিপুণ। ওটিটি প্ল্যাটফর্ম হইচই-তে ‘মহানগর’ প্রকাশ পাবার পর থেকে দুই বাংলার গণমাধ্যমে অভিনেতা-অভিনেত্রীদের অভিনয় নিয়ে প্রশংসা বয়ে চলেছে।
বলতে গেলে দুই বাংলায় ঝড় তুলেছে ‘মহানগর’ ওয়েব সিরিজটি। ‘মহানগর’ দর্শকদের পছন্দের তালিকায় জায়গা করে নিয়েছে এটি। এই সিরিজে ওসি হারুনের ভূমিকায় দূর্দান্ত অভিনয় করেছেন মোশাররফ করিম। এই অভিনেতা সিরিজটি প্রকাশের আগে জানান, এটি আমার প্রথম ওয়েব সিরিজ হইচই-র সাথে এবং এই প্ল্যাটফর্মটি অনেক মানুষের কাছে পৌঁছেছে। তাই আমি আশা করি, সারা বিশ্বের বাঙালিরা নিজেদের বাড়িতে সুরক্ষিত পরিবেশে এবং স্বাচ্ছন্দ্যের সঙ্গে আমাদের সিরিজ ‘মহানগর’ উপভোগ করবেন। এবার সেই সাড়া তিনি পাচ্ছেন। অনেকের মুখে ওয়েব সিরিজটির প্রশংসা পেয়েছেন। যেমন পেলেন ভারতীয় অভিনেতা অনির্বাণ ভট্টাচার্য -এর কাছ থেকে। এই অভিনেতা ওয়েব সিরিজ ও মোশাররফ করিমের অভিনয় নিয়ে লিখেছেন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। অনির্বাণ তার টুইটার অ্যাকাউন্টে লিখেছেন, খাসা লাগলো। ‘তকদীর’, ‘মহানগর’… প্রত্যাশা বাড়লো। ধন্যবাদ আশফাক নিপুণ। মোশারফ করিম মশাই, ধন্যবাদ আপনার অভিনয়ের ক্লাসের জন্য।

ওপার বাংলাতেও সমান জনপ্রিয় হয়েছে এই সিরিজটি। ‘মহানগর’ সিরিজে সাব-ইন্সপেক্টর মলয়ের চরিত্রে মোস্তাফিজুর নুর ইমরানের অভিনয় ছিল নিজস্বতায় ভরপুর, এই কারণেই মোশাররফ করিমের পাশে তিনি হারিয়ে যাননি। ক্ষমতাদর্পী আফনানের ভূমিকায় শ্যামল মাওলাও দূর্দান্ত অভিনয় করেন। দাপুটে এসি শাহানার ভূমিকায় জাকিয়া বারী মম চমৎকার অভিনয় করেছেন। তবে স্বল্প উপস্থিতিতেই নিখুঁত ও ধারালো অভিনয়ে দর্শকদের মন মাতিয়েছেন নাসিরউদ্দিন খান। মাঝে মাঝেই কয়েদ খাটা লোকটির ভূমিকায় নাসিরের ফিচেল হাসি ভোলা যায় না। লুৎফর রহমান জর্জ, শাহেদ আলী, নিশাত প্রিয়ম, চমকসহ সকলের অভিনয়ে ছিল প্রাণ।

আট পর্বের এই ওয়েব সিরিজের পর্বগুলির নাম দিয়েছেন পরিচালক– ‘ঈশানের মেঘ’, ‘চিচিং ফাঁক’, ‘শাপে বর’, ‘গলার কাঁটা’, ‘অমাবস্যার চাঁদ’, ‘অন্ধের যষ্ঠি’, ‘গোড়ায় গলদ’ এবং ‘কিস্তিমাত’। পরিচালক একটি থ্রিলার নির্মাণ করতে চেয়েছেন বলেই সম্ভবত এই সব সাংকেতিক উপ-শিরোনাম।

‘মহানগর’-র প্রথম সিজনের শেষ পর্বের শেষ দৃশ্যে হারুনকে ঘিরে একটি রহস্য তৈরি করা হয়েছে। দর্শকদের মনে প্রশ্ন জাগে, আসলে কি সে সৎ, নাকি ঘুষখোর? এটার উত্তর হয়ত নির্মাতা আশফাক নিপুণ সিরিজের সিজন টু-তে দর্শকদের জানিয়ে দিবেন। সেই অপেক্ষায় এখন রয়েছে দুই বাংলার দর্শকরা।