যুক্তরাজ্য-যুক্তরাষ্ট্রে খালেদার বায়োপসি নমুনা পাঠানো হলো

14

যুক্তরাজ্য ও যুক্তরাষ্ট্রের ল্যাবরেটরিতে পাঠানো হয়েছে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বায়োপসির নমুনা সম্পর্কে আরও স্বচ্ছ ধারণা পেতে। গত শনিবার রাজধানীর এভার কেয়ার হাসপাতালের প্রতিবেদন চিকিৎসকদের হাতে আসে। পরের দিন রবিবার ওই নমুনা বিদেশে পাঠানো হয়েছে বলে মেডিক্যাল বোর্ডের একজন চিকিৎসক গতকাল নিশ্চিত করেছেন।ওই চিকিৎসক জানান, যুক্তরাজ্য ও যুক্তরাষ্ট্রের ল্যাবরেটরিতে পাঠানো নমুনার প্রতিবেদন পেতে ২০ থেকে ২৫ দিন সময় লাগতে পারে।

এদিকে খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা উন্নতির দিকে বলে জানিয়েছেন তার ব্যক্তিগত চিকিৎসক অধ্যাপক ডা. এজেডএম জাহিদ হোসেন। তিনি বলেন, ‘চেয়ারপারসনের জন্য গঠিত মেডিক্যাল বোর্ড রিপোর্ট পর্যালোচনা করে চিকিৎসাপত্র দিয়েছে। সেই অনুযায়ী তার চিকিৎসা চলছে। তার অবস্থা উন্নতির দিকে।’ মেডিক্যাল বোর্ডের এক চিকিৎসক জানান, খালেদা জিয়াকে নিয়মিত ওষুধের পাশাপাশি বোর্ডের পরামর্শ অনুযায়ী অ্যান্টিবায়োটিক দেওয়া হচ্ছে।৭৬ বছর বয়সী খালেদা জিয়া নানা শারীরিক জটিলতায় ভুগছেন। গত কয়েক বছর ধরে বিএনপির চেয়ারপারসন কিডনি-লিভার সমস্যা, ডায়াবেটিস, আথ্রাইটিসসহ বিভিন্ন রোগে ভুগছেন।

গত ১২ অক্টোবর খালেদা জিয়ার শরীরে জ্বর দেখা দিলে চিকিৎসার জন্য তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বর্তমানে তিনি এভারকেয়ার হাসপাতালের হƒদরোগ বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক ডা. শাহাবুদ্দিন তালুকদারের তত্ত্বাবধানে ১০ সদস্যের মেডিক্যাল বোর্ডের অধীনে চিকিৎসাধীন। এর আগে করোনা ভাইরাসসহ বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হয়ে টানা ৫৪ দিন একই হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন তিনি। ‘পরিপূর্ণ চিকিৎসা’র জন্য খালেদা জিয়াকে দেশের বাইরে নিতে পরিবারের পক্ষ থেকে আবেদন করা আছে।