রুডি জুলিয়ানি ওয়াশিংটনে আইন প্রাকটিস থেকে সাসপেন্ড

19

যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্পের আইনি টিমের অন্যতম রুডি জুলিয়ানিকে ওয়াশিংটন ডিসিতে আইন প্রাকটিস থেকে সাসপেন্ড করা হয়েছে। ২০২০ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচন নিয়ে তিনি মিথ্যা তথ্য দেয়ার অভিযোগে এর আগে গত মাসে নিউ ইয়র্কে র আদালত থেকে একই রকম আদেশ দেয়া হয়। এবার যুক্তরাষ্ট্রের একটি আপিল আদালত সেই রায় বহাল রেখেছে। ফলে আপাতত ওই নির্দেশ আদালত থেকে প্রত্যাহার না করা পর্যন্ত রুডি জুলিয়ানি ওয়াশিংটনে আইনি প্রাকটিস করতে পারবেন না। এ খবর দিয়েছে অনলাইন গার্ডিয়ান।

উল্লেখ্য, গত প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রমাণহীন ভোট কারচুপির অভিযোগ করেন ডনাল্ড ট্রাম্প। তার সঙ্গে তাল মিলান রুডি জুলিয়ানিসহ তার আইনজীবী দল। মিথ্যা তথ্য দিয়ে এবং বিভ্রান্তিকর বিবৃতি দিয়ে তারা আদালত, আইন প্রণেতা এবং জনগণকে ভুল পথে পরিচালিত করার চেষ্টা করেছিলেন বলে রুডি জুলিয়ানির বিরুদ্ধে ওই রায় দেয়া হয়। গত মাসে নিউ ইয়র্কে রুডি জুলিয়ানির আইনি পেশা পরিচালনার লাইনেন্স সাসপেন্ড করা হয়। সেকথা বুধবার তুলে ধরে ওয়াশিংটন ডিসির আপিল আদালত ওই রায় দেয়।

জুনে নিউ ইয়র্কের আদালত দেখতে পায় যে, জুলিয়ানি আদালতে মিথ্য সাক্ষ্য দিচ্ছেন। তিনি বলছেন, নির্বাচনের ফল চুরি করা হয়েছে। এর প্রেক্ষিতে জুলিয়ানির লাইসেন্স বাতিল করা হবে এবং তার বিরুদ্ধে শৃংখলা বিরোধী ব্যবস্থা নেয়ার কথা বিবেচনা করা হচ্ছে। নিউ ইয়র্ক আপিলেট ডিভিশন গত ৬ই জানুয়ারি ক্যাপিটল হিলে নৃশংস দাঙ্গার উল্লেখ করে বলেছে, জুলিয়ানি যে মিথ্যা তথ্য দিয়েছেন তা জনগণের স্বার্থের পরিপন্থি এবং একই সঙ্গে নির্বাচনী প্রক্রিয়ায় জনগণের আস্থা নষ্ট করবে। রায় দেয়ার পর ২৪ শে জুন জুলিয়ানি বলেন যে, তিনি এই সাসপেনশনের বিরুদ্ধে লড়াই করতে আদালতে যাবেন।

উল্লেখ্য, গত প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে একদিকে ডনাল্ড ট্রাম্প যেমন নির্বাচনে জালিয়াতির অভিযোগ করেন, তেমনি তার আইনজীবী দল এবং সমর্থকরা। তবে তারা এর স্বপক্ষে কোনো প্রমাণ দিতে পারেননি। নিউ ইয়র্কের মামলার রায় সমাধান না হওয়া পর্যন্ত ওয়াশিংটন ডিসিতে আইনি প্রাকটিস করতে পারবেন না জুলিয়ানি।