Home / স্বাস্থ্য / রোগী উধাও করোনা শনাক্তের খবরে স্বামী-সন্তান নিয়ে

রোগী উধাও করোনা শনাক্তের খবরে স্বামী-সন্তান নিয়ে

করোনা শনাক্ত এক নারী স্বামী-সন্তান নিয়ে উধাও হয়েছেন। তার নাম রাশেদা (৪০) শেরপুরের ঝিনাইগাতীতে । ওই নারীর বাড়ি উপজেলার ধানশাইল ইউনিয়নের বাগেরভিটা গ্রামে।

বুধবার সকাল থেকে তিনি নিজ বাড়ি থেকে উধাও হন। তিনি ওই গ্রামের আনারুল ইসলামের স্ত্রী। এই দম্পতির ৮ এবং ৪ বছর বয়সী দুটি সন্তান রয়েছে। বড় ছেলে সন্তানটি তাদের সাথে রয়েছে। অন্যদিকে ছোট সন্তানটি বাগেরহাটের এক আত্মীয়ের বাড়ি রয়েছে বলে জানা গেছে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে ঝিনাইগাতী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের পরিবার ও পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. জসিম উদ্দীন বলেন, গেল ৩০ মে শনিবার বিকালে রাশেদার করোনা নমুনা সংগ্রহ করা হয়। ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা ল্যাবের রিপোর্ট অনুযায়ী ২ জুন মঙ্গলবার রাতে তিনি করোনা শনাক্ত হন। একই দিন (২ জুন) সকালে রাশেদার স্বামীর করোনা পরীক্ষার নমুনা সংগ্রহ করা হয়।

ডা. জসিম আরও বলেন, ধারণা করা হচ্ছে- ওই পরিবারটি স্থানীয়ভাবে হেনস্থার শিকার হতে পারেন ভেবে বাড়ি ছেড়ে পালিয়েছেন। তাদের খুঁজে বের করার বিষয়ে ব্যবস্থা নিতে স্থানীয় চেয়ারম্যান, থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এবং উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে অনুরোধ জানানো হয়েছে।

ঝিনাইগাতী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার আহিদ ইকবাল এবং স্বাস্থ্য সহকারী মাসুদ রানা বলেন, মঙ্গলবার রাতে রাশেদার করোনা রিপোর্ট পজিটিভ আসার পর রাতেই তাকে হোম আইসোলেশনে থাকার পরামর্শ দেয়া হয়। পরে বুধবার সকালে রাশেদার শারীরিক অবস্থার খোঁজ নিতে বাড়িতে গেলে তাদের কাউকেই পাওয়া যায়নি। এরপর রাশেদার ব্যবহৃত মোবাইল নাম্বারে বারবার যোগাযোগের চেষ্টা করা হয়। কিন্তু রিং হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি। পরে এ ঘটনা স্থানীয় চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম এবং ওই বাড়ির আশপাশের লোকজনকে জানানো হয়। পরে বিকালে ওই এলাকার আজাদ এবং ফারুক নামে দুজন জানায় ওই দম্পতি জেলার আরেক উপজেলা শ্রীবরদীর ভেলুয়ায় পালিয়ে যেতে পারে।

করোনা শনাক্ত রাশেদার অবস্থান জানতে তার মোবাইল ফোন ট্রেক করা হচ্ছে। পাশাপাশি অন্য কৌশল অবলম্বন করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন ঝিনাইগাতী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু বকর সিদ্দিক।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

%d bloggers like this: