লিরার দাম কমেছে ১৫% ,এরদোগানের সিদ্ধান্তের প্রভাবে তুরস্কের পুঁজিবাজারে ঐতিহাসিক ধস

100

তুরস্কের পুঁজিবাজার ২০০৮ সালের বিশ্ব মন্দার পর সবথেকে খারাপ দিন পার করছে । সম্প্রতি বিনিয়োগকারীদের হতবাক করে দিয়ে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের গভর্নরকে বরখাস্ত করেন দেশটির প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েফ এরদোগান। এরপরই ঐতিহাসিক এ ধস নামে দেশটির পুঁজিবাজারে। সোমবার বিআইএসটি-১০০ ইন্ডেক্সে ২০১৩ সালের পর সবথেকে বড় ধস দেখা গেছে। এ খবর দিয়েছে সংবাদ সংস্থা রয়টার্স।

এর আগে শনিবার কেন্দ্রীয় ব্যাংকের গভর্নর নাসি আগবালকে বরখাস্ত করে। সেখানে নিয়োগ দেয়া হয়েছে সরকারপন্থী আইনপ্রনেতা সাহাপ কাভসিয়োগলুকে। এ নিয়ে উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছেন বিনিয়োগকারীরা। এরদোগানের অধীনে গত এক দশকে বড় বিপর্যয়ের মুখে পড়েছে তুরস্কের অর্থনীতি।

একটানা কমছে লিরার দাম। বিবিসির খবরে জানানো হয়েছে, নাসি আগবালই লিরার দাম ধরে রাখতে সর্বোচ্চ ভূমিকা রেখেছিলেন। কিন্তু তারপরেও তাকে হঠাত করেই সরিয়ে দিলেন এরদোগান। গত দুই বছরে এ নিয়ে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের তিনজন গভর্নরকে সরিয়ে দেয়া হলো দেশটিতে। আবগালকে মাত্র ৫ মাস আগেই নিয়োগ দেয়া হয়েছিল। আবগালকে অপসারণের পরপরই আবারো কমতে শুরু করেছে লিরার দাম। এরইমধ্যে লিরা মূল্য হারিয়েছে ১৫ শতাংশ।