Home / আর্ন্তজাতিক / সিন্ডি ম্যাককেইনের জো বাইডেনকে সমর্থন

সিন্ডি ম্যাককেইনের জো বাইডেনকে সমর্থন

বহুল আলোচিত প্রয়াত সিনেটর জন ম্যাককেইনের স্ত্রী সিন্ডি ম্যাককেইন যুক্তরাষ্ট্রে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডেমোক্রেট দলের প্রার্থী জো বাইডেনকে সমর্থন দিয়েছেন দীর্ঘদিনের রিপাবলিকান। জন ম্যাককেইন অ্যারিজোনা থেকে দীর্ঘ সময় সিনেটর হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। মঙ্গলবার রাতে বৃত্ত ভেঙ্গে তার স্ত্রী অনুমোদন দিলেন জো বাইডেনকে। সিন্ডি ম্যাককেইন টুইটারের মাধ্যমে তার প্রতি সমর্থন প্রকাশ করেন। এ খবর দিয়েছে অনলাইন সিএনএন। ধারাবাহিক টুইটে সিন্ডি লিখেছেন, আমার প্রয়াত স্বামী জন একটি কোড ধারণ করে জীবন ধারণ করতেন। তাহলো- কান্ট্রি ফার্স্ট বা সবার আগে দেশ। আমরা রিপাবলিকান বটে।

তবে সবার আগে আমরা আমেরিকান। এই নির্বাচনে একজনমাত্র প্রার্থী আছেন। তিনি আমাদের জাতির  মূল্যবোধের পক্ষে অবস্থান করেন। তিনি হলেন জো বাইডেন। তিনি এবং আমি সব সময় সব ইস্যুতে একমত নই। আমি জানি তার ও জন ম্যাককেইনের মধ্যে অবশ্যই কিছু আবেগপূর্ণ বোঝাপড়া ছিল। তিনি একজন ভাল ও সৎ মানুষ। তিনি আমাদেরকে মর্যাদার সঙ্গে নেতৃত্ব দেবেন। তিনি হবেন এমন একজন কমান্ডার ইন চিফ, যিনি ইতিহাসে সবচেয়ে সুষ্ঠু শক্তি হবেন, যার ওপর নির্ভর করতে পারবে বিশ্ব।
সিন্ডি ম্যাককেইনের এমন প্রশংসা ও সমর্থনে অভিভূত জো বাইডেন। জবাবে তিনি বলেছেন, সিন্ডি- আপনার সমর্থন এবং আপনাদের সঙ্গে বন্ধুত্বের জন্য আমি গভীরভাবে সম্মানীত। এই নির্বাচন একটি রাজনৈতিক দলের পরিচয়ের চেয়েও বড় বিষয়। এ জন্য আমাদের সবাইকে একত্রিত হতে হবে। এক আমেরিকান হতে হবে। আমাদের জাতীয় মর্যাদাবোধ পুনঃপ্রতিষ্ঠা করতে হবে। একসঙ্গে আমরা তা করবো।
মঙ্গলবার ভার্চুয়াল ব্যবস্থায় তহবিল সংগ্রহের সময় উপস্থিতদের কাছে জো বাইডেন সিন্ডি ম্যাককেইনের সমর্থনের কথা জানান। প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প যুক্তরাষ্ট্রের যুদ্ধকালে নিহত সেনাদের ‘লুজারস’ এবং ‘সাকারস’ বলে আখ্যায়িত করেছিলেন বলে দ্য আটলান্টিক ম্যাগাজিন এর আগে রিপোর্ট প্রকাশ করে। তার সেই মন্তব্যে আহত হয়েছেন সিন্ডি ম্যাককেইন। এরপরই তিনি জো বাইডেনকে সমর্থন দেয়ার সিদ্ধান্ত নেন। কারণ, জন ম্যাককেইন ভিয়েতনামে যুদ্ধাহত একজন বর্ষীয়ান যোদ্ধা ছিলেন। বোমা মেরে তার বিমান ভূপাতিত করার পর তাকে ভিয়েতনামের জেলে আটক রাখা হয়েছিল। ওই সময় মারাত্মক আহত হন তিনি। সেই ক্ষত তাকে সারাজীবন টেনে নিয়ে বেড়াতে হয়। তিনি পুরো জীবন কাটান পঙ্গু হয়ে। এমনকি তার দুটি হাত মাথার ওপরে উঠাতে পারতেন না।
এ প্রসঙ্গে জো বাইডেন বলেন, হয়তো আমার এটা বলা উচিত নয়। তবু বলবো। প্রথমবারের মতো জন ম্যাককেইনের স্ত্রীর চোখ দিয়ে এ বিষয়টি দেখবো। তিনি আমাকে সমর্থন দিয়েছেন। কারণ, আমরা ছেলের সঙ্গে তিনি এমনটাই আলোচনা করেছিলেন। তারা তো হিরো, যারা দেশের জন্য সেবা দিয়েছেন, যুদ্ধ করেছেন। আপনারা জানেন, তিনি (ট্রাম্প)Ñ তাদেরকে লুজারস এবং সাকারস বলে আখ্যায়িত করেছেন। তবে এ বিষয়ে সিন্ডির প্রতিনিধি তাৎক্ষণিক মন্তব্য করতে রাজি হননি।
২০০৮ সালে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রিপাবলিকান দল থেকে মনোনয়ন পেয়েছিলেন জন ম্যাককেইন। সেই ব্যক্তির স্ত্রীর সমর্থন যখন বিরোধী শিবির অর্থাৎ ডেমোক্রেটদের দিকে যায় তখন বিষয়টি অনেককেই ভাবায়। এখানে বলা যেতে পারে, অনেকবার জন ম্যাককেইনের নাম ধরে তাকে আক্রমণ করেছেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। ২০১৫ সালেও তিনি এমনটা করেন, যখন ট্রাম্প বলেছিলেন, তিনি জন ম্যাককেইনকে একজন যুদ্ধের হিরো হিসেবে বিবেচনা করেন না।
এ বছর ডেমোক্রেটিক দলের কনভেনশনে একটি ভিডিওতে তুলে ধরা হয়েছে সিন্ডি ম্যাককেইনকে। ওই ভিডিও নিয়ে তিনি টুইটে লিখেছেন, সিনেট দায়িত্ব পালনের আগে একসঙ্গে ৩০ বছরের বেশি বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক বজায় রেখেছিলেন আমার স্বামী ও সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। তাই তাদের সেই সম্পর্ককে উদযাপনের জন্য এই ভিডিওতে বাইডেনের প্রচারণায় অংশ নেয়ার আমন্ত্রণ আমি সম্মানের সঙ্গে গ্রহণ করেছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

%d bloggers like this: